টাকা আয় করার apps – টাকা ইনকাম ১০টি apps সম্পর্কে জানুন

টাকা আয় করার apps

টাকা আয় করার apps খুঁজে ইন্টারনেটের সার্চ ইঞ্জিনে প্রচুর পরিমাণে সার্চ হয়। বিশেষ করে আমাদের ছাত্র ভাইদের মাঝে এর ট্রেন্ডটা বেশি লক্ষণীয়। তবে বর্তমানে শুধু ছাত্রদের মাঝেই তা সীমাবদ্ধ নয়, শহর-গ্রামঞ্চালের সবাই টাকা ইনকাম করার apps এর সন্ধান করে থাকে। আপনি যদি ২০২০-২০২১ সালের সার্চ ইঞ্জিরে ডাটাগুলো নিয়ে একটু রিসার্চ করেন, তাহলে দেখতে পাবেন যে, শুধুমাত্র বাংলাদেশে ৮০০+ মানুষ ইন্টারনেটে “ টাকা আয় করার apps “ লিখে সার্চ করে থাকে গুগলে। তাহলে বোঝতেই পারছেন যে, অনলাইনে টাকা আয় করার জন্য মানুষগুণ অ্যাপস Apps এর প্রতি কতটা আকর্ষিত। এখানে ছাত্রদের জন্য ১০টি উপকারী অ্যাপস এর নাম সহ বর্ণনা করা হয়েছে, যেগুলোর মাধ্যমে ইনকাম করতে পারা যায়।

আমাদের সবার নিকটেই স্মার্টফোন ( Smartphone ) রয়েছে। বাংলাদেশে মোট স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা হলো প্রায় ১২ কোটির উপর। তাহলে বোঝতেই পারছেন এতো হিউজ পরিমাণ ব্যবহারকারীদের ব্যবসায়িক কোম্পানিগুলো কেনই বা টার্গেট করবে না। তাই তারা তাদের ব্যবসাকে প্রসার করতে মোবাইল অ্যাপসগুলোকে ব্যবহার করছে। সেই সুযোগে সেই অ্যাপসগুলো দ্ধারা সাধারণ মানুষদেরকেও টাকা আয় করার সুযোগ তৈরি করে দিয়েছে। এখন আপনি যদি সেই ব্যক্তি হোন যে, আপনার মোবাইল থাকা apss এর মাধ্যমে টাকা আয় করতে চান, তাহলে আজকের আর্টিকেলে আমরা তেমন ১০টি মোবাইল অ্যাপস ( ‍Android mobile apps to earn money from online) আলোচনা করেছি,  যেগুলো দ্ধারা আপনিও টাকা আয় করতে পারেন। তবে একটি বিষয় হচ্ছে, এখানে দেখানো অ্যাপসগুলো ফেজবুকে আয় বা ইউটিউবে আয় করার মতো নয়। তাই এগুলোকে ক্যারিয়ার হিসেবে নেওয়ার চিন্তা করবেন না।

মূল আলোচনা শুরু করার আগে অবশ্যই একটি বিষয় ক্লিয়ার করা উচিত, সেটি হলো বর্তমানে টাকা ইনকাম apps নামে অনেকগুলো মোবাইল অ্যাপস মার্কেটে mobile apps in market রয়েছে। যেগুলো প্রায় অধিকাংশই হলো ফেইক বা ভূয়া। দেখা গেল, আপনি সারাদিন/সপ্তাহ/মাস কষ্ট করে কাজ করলেন কিন্তু দিন শেষে তাঁরা আপনার কষ্টে অর্জিত টাকা আত্মস্বাদ করে ফেলেছে। তাই এখানে এমন কিছু প্রিমিয়াম মোবাইল অ্যাপস ( Premium Mobile apps for income money ) এর নাম উল্লেখ করা হয়েছে, যেগুলো দ্ধারা আপনি টাকা আয় করতে সক্ষম হবেন এবং টাকা আত্মস্বাদের মতো কোনো ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা একেবারেই কম। কিন্তু তারপরও বলে রাখা ভালো যে, অনলাইনে টাকা আয় করার যতোগুলো অ্যাপস রয়েছে, তাঁর মধ্যে প্রায় সবাই প্রতারক টাইপের হয়ে থাকে। সুতরাং এখানে আমি যে মোবাইল অ্যাপসগুলো টাকা ইনকামের জন্য আলোচনা করবো, আপনারা সেগুলোকে আরেকবার ভালোভাবে রিসার্চ করে সেখানে কাজ করবেন বা ইনবেস্ট করবেন। কেননা এরকম টাইপের সমস্ত অ্যাপসগুলোই হলো থার্ড পার্টি টাইপ অ্যাপস Third party types apps.। সেই প্রেক্ষিতে টাকা আত্মস্বাদ বা অন্য কোনো কারণে পরে Banglatip সাইট কোনোভাবেই দায়ী থাকবে না। নিজ দায়িত্বে টাকা আয় করার apps ‍গুলোকে নিয়ে আরেকবার রিসার্চ করবেন।

টাকা আয় করার মোবাইল apps (অ্যাপস)

টাকা আয় করার মোবাইল apps

সাধারণত টাকা আয় করার অনেগুলো apps রয়েছে। কিন্তু এসব অ্যাপসের মধ্যে কোন অ্যাপসগুলো টাকা আয়ের জন্য সবচেয়ে কার্যকারী সে জিনিসটাকে আমাদের প্রথমে বোঝতে হবে। অন্যথায় সারাদিন/সপ্তাহ/মাস কাজ করে যাবো কিন্তু দিন শেষে অবসাদ আর হতাশা ছাড়া কিছুই পাওয়া সম্ভব নয়। তাই এখানে আমি কিছু নির্ভরযোগ্য অ্যাপস এর নাম উল্লেখ করেছি যেগুলো তুলনামূলকভাবে অন্য সব টাকা আয় করার apps থেকে কিছুটা হলেও নিরাপদ। চলুন সেই মোবাইল অ্যাপস mobile apps গুলোর সাথে প্রথমে পরিচিত হই। টাকা আয় করার apps হলো-

  • Pocket Money
  • Meesho App
  • Picxele
  • Cash Buddy
  • TaskBucks
  • Roz Ghan
  • Current Rewards
  • Google Opinion Rewards
  • Poll Pay
  • Earn Talktime

মূলত আজকের আর্টিকেলে আমরা উপরোক্ত অ্যাপসগুলো নিয়ে ডিটেইলস আলোচনা করার চেষ্টা করবো। তবে আমি পূর্বেই বলে রেখেছি, এগুলো হলো থার্ড পার্টি জাতীয় অ্যাপস। যেকোনো সময় হাওয়া হয়ে যাওয়া সম্ভাবনা রয়েছে। তবে ইন্টারনেটে অহোরোহ ভাবে থাকা অ্যাপসগুলো থেকে কিছুটা আলাদাও বিশ্বস্ত। যে কারণে টাকা আয় করার apps এর আর্টিকেলে উক্ত ১০টি অ্যাপসকে জায়গা দিয়েছি। চলুন তাহলে ক্রমান্বয়ে অ্যাপসগুলো সম্পর্কে ডিটেইলস জানা যাক।

Pocket Money ‍apps

Pocket Money apps টি হলো টাকা আয়ের বেশ জনপ্রিয় একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ( Android apps).। বর্তমানে এটি প্লে স্টোরে প্রচুর ডাউনলোড হচ্ছে এটি। প্রায় ১ মিলিয়ন ডাউনলোড সম্পূর্ণ হয়েছে এবং ডে বাই ডে এর ডাউনলোড বা ইউজার সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। অন্যদিকে এটির ইউজার রেটিং হলো ৪.৬! যা অবশ্যই এর পজেটিভ একটি দিক। চলুন তাহলে এর মাধ্যমে কিভাবে আয় করা যায়, তার সম্পর্কে জানা যাক।

Read More  Mobile Tips Bangla | টোটাল ১0টি Secret mobile tips

Pocket Money Apps দ্ধারা টাকা আয় করার উপায়:

  • Pocket Money apps তে রয়েছে ভিন্ন ভিন্ন অনেক ধরনের মোবাইল অ্যাপস। ঐ সকল অ্যাপস আপনি আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ডাউনলোড করে করতে পারেন টাকা আয়।
  • এছাড়াও টাকা ইনকাম করার apps হিসেবে Pocket Money apps টিতে Game খেলা খেলেও টাকা আয় করা সম্ভব। সেই গেমসটির নাম হলো Tombola Game. এই গেইমসটি খেলে প্রচুর টাকা আয় করতে পারেন।
  • এই অ্যাপসে আপনি সার্ভে করেও আয় করতে পারেন। United Survey সহ নানা রকম সার্ভে করতে পারবেন এই অ্যাপসটির মাধ্যমে। যা দ্ধারা আপনি টাকা আয় করতে পারেন।
  • এছাড়ও আপনি যদি অন্য কাউকে Pocket Money apps টি ব্যবহার করার জন্য উৎসাহিত করে ডাউনলোড করাতে পারেন, তাহলেও আপনি ইনকাম করতে পারেন। এই ক্ষেত্রে দিনে আপনি সর্বোচ্চ ১৬০ টাকা পর্যন্ত টাকা আয় করতে পারেন।
  • প্রতি সপ্তাহে সপ্তাহে তাদের অ্যাপসসে থাকে Weekly contest নামকে প্রোগ্রাম। সেই contest গুলোতে অংশগ্রহণ করে জিতে আয় করতে পারেন টাকা।

মূলত এখানে উল্লেখিত উপায়গুলোর মাধ্যমে Pocket Money apps টি দ্ধারা অনলাইনে আপনার হাতে থাকা অ্যান্ড্রয়েড ফোন দ্ধারা টাকা আয় করতে পারেন। এই অ্যাপসটি বর্তমানে টাকা আয় করার জন্য অনেক গ্রাহক ব্যবহার করছে। সুতরাং আপনিও ব্যবহার করতে পারেন।

Meesho App

Meesho App হলো অনলাইনে ইনকাম করার অন্যতম একটি অ্যাপস ( Online income apps ). এই অ্যাপসটির মাধ্যমে আপনি ঘরে বসেই টাকা আয় করতে পারেন। কিন্তু কিভাবে? ভিন্ন ভিন্ন কোম্পানির প্রোডাক্ট সেল দিয়ে আপনিও আয় করতে পারেন। Meesho App হলো মূলত টাকা আয় করার একটি রিসেলার মাধ্যম। আপনি কোনো একটি প্রোডাক্টকে পরোক্ষভাবে রিসেল করে টাকা ইনকাম করতে পারেন। Meesho App টিতে টাকা আয়ের কোনো রকম লিমিটেশন নেই। আপনি যত প্রোডাক্ট বিক্রি করতে পারবেন, ততো ইনকাম করতে পারবেন। মূলত সকল ধরনের Clothing Products গুলো এখান থেকে বিক্রি করতে পারবেন। যেমন Suits, Kurta, Ladies Tops, Sarees, Hair clips সহ ইত্যাদি। এখন প্রশ্ন আসতে পারে কিভাবে Meesho App দ্ধারা টাকা আয় করবো? কোনো ওয়েতে?

Meesho App দ্ধারা টাকা আয় করার উপায়:

  • প্রথমে গুগল প্লে স্টোর থেকে অ্যাপসটি ডাউনলোড করে নিতে হবে – Firstly you have to download Meesho App from Google Play Store.
  • এবার তাদের সেখানে একটি একাউন্ট খুলতে হবে। অ্যাপসটি ইনস্টল করে সেখানে একটি একাউন্ট তৈরি করুন।
  • আপনি অ্যাপসটি ওপেন করলে দেখবেন সেখানে অনেকগুলো প্রোডাক্ট শো করছে। সেখান থেকে আপনি আপনার পছন্দনুযায়ী সবচেয় সেরা প্রোডাক্টগুলো চয়েজ করবেন। এবার চয়েজকৃত প্রোডাক্টগুলোকে আপনি যে দামে বিক্রি করতে চান, সে দামটি ঠিক করে প্রোডাক্টের লিংক তৈরি করুন।
  • এখন আপনার কাজ হচ্ছে সেই লিংটির মার্কেটিং করা অর্থাৎ প্রচার করা। আপনি ভিন্ন ভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে সেই লিংকটিকে রেফারিং লিংক হিসেবে প্রচার করতে পারেন।
  • তখন সেই লিংকে ক্লিক করে যখন ক্রেতারা সেই প্রোডাক্টটি ক্রয় করবে তখন Meesho App এর কর্তৃপক্ষ আসল দামটি রেখে বাকি লাভাংশ আপনাকে দিয়ে দিবে। মূলত এভাবেই রিসেলের মাধ্যমে Meesho App থেকে টাকা আয় করা যায়।

মূলত এই ছিল Meesho App এর মাধ্যমে টাকা আয় করার সেরা একটি উপায়। এই উপায়ে টাকা আয় করার সবচেয়ে ভালো দিকটি হলো এখানে আপনাকে ফিজিক্যালি কিছু করতে হয় নি। না রাখতে হয়েছে স্টোকে প্রোডাক্ট। কিছুই করতে হয় নি। এভাবেই দিনে যতো ইচ্ছে টাকা আয় করতে পারেন।

Picxele  ‍apps

Picxele apps এর মাধ্যমে অনেক কিছু করা যায়। আপনাদের ইচ্ছানুযায়ী এখান থেকে বিভিন্ন পার্টটাইম ইন্টারশিপ, Brand Campaigns, Influencer marketing সঙ্গে কাজ করে টাকা আর্নিং করতে পারবেন।

এছাড়া এখানে বিভিন্ন টাস্ক করার পরিবর্তে ফেভারিট স্টোর থেকে ক্রয় করে ক্যাশব্যাক পাওয়া যায়। পেমেন্ট আপনি নিজের ব্যাঙ্ক বা paytm এ redeem করেনিতে পারবেন।

মূলত এভাবেই Picxele  অ্যাপস এর মাধ্যমে একজন ছাত্র মোবাইল অ্যাপস এর মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারে। যদি আপনি Picxele টির মাধ্যমে অনলাইনে মোবাইলে টাকা আয় করতে চান, তাহলে দয়া করে প্রথমে Picxele appsটি ডাউনলোড করুন। এরপর বলা পদ্ধতিতে চেষ্টা করুন।

Read More  প্লে স্টোর অ্যাপস ডাউনলোড কিভাবে করবো

Cash Buddy ‍apps

Cash Buddy হলো অনলাইনে টাকা আয় করার আরেকটি মোবাইল অ্যাপস। Cash Buddy মাধ্যমে টাকা আয় করা মোটামোটি পূর্বের অ্যাপসগুলোর মতোই। মূলত আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহার করা সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপসগুলোর মতোই Cash Buddy appsটি। বর্তমানে সাধারণ কিছু কমন কাজ-কর্মের মাধ্যমে আপনি এই অ্যাপসটি থেকে টাকা আয় করতে পারেন। সেই কাজগুলো হলো-

  • sharing pics & gifs
  • installing & registering free android apps
  • game
  • invite
  • online shopping
  • website ইত্যাদি।

কেউ যদি এখান থেকে শপিং করে তাহলে সে প্রচুর পরিমাণে ক্যাশ ব্যাক পাবে। এছাড়াও আপনি আপনার বন্ধুমহলকে ইনভাইট করে টাকা আয় করতে পারেন। সাধারণত কাউকে রেফার করলে সেখান থেকে বেশ ভালো পরিমাণ একটি ইনকাম জেনারেট করতে পারবেন। তাই টাকা ইনকাম করার অ্যাপস হিসেবে এটি বেশ ভালো একটি অ্যাপস।

TaskBucks apps

বর্তমানে Google Play Store এ TaskBucks apps এর রেটিং অনেক ভালো এবং ডাউনলোডও হয়েছে ব্যাপক। মোটামোটি প্লে স্টোরের দিকে নজর দিলেই বোঝা যায় যে, টাকা আয়ের কিছুটা হলেও বিশস্ত একটি অ্যাপস হলো এটি। এখানে ভিন্ন ভিন্ন উপায়ে টাকা আয় করতে পারেন। এটি হলো best online income apps. তাই দিন দিন এর চাহিদা বাড়ছে। TaskBucks ‍অ্যপস থেকে টাকা ইনকাম করার উপায়গুলো হলো-

  • Quiz খেলে টাকা আয়
  • ভিন্ন ভিন্ন টাস্ক রয়েছে। সেগুলো সম্পূর্ণ করার মাধ্যমে টাকা আয়
  • বন্ধু বা কমিউনিটির কাউকে ইনভাইট invite করার মাধ্যমে টাকা আয়

মূলত এই উপায়গুলোর মাধ্যমেই আপনি TaskBucks apps থেকে টাকা আয় করতে পারেন। এছাড়াও ডে বাই ডে নতুন নতুন ফিচার যোগ হচ্ছে অ্যাপসটিতে। তাই আপনি যদি সত্যিকার অর্থে মোবাইল অ্যাপস এর মাধ্যমে টাকা আয় করতে চান, তাহলে TaskBucks অ্যাপসটি ডাউনলোড করে আজই আয় শুরু করুন।

Roz Ghan apps

বর্তমানে Roz Ghan apps টিকে best online money earning apps বলা হয়। কেননা বিভিন্ন ফোরাম, রিভিও, রেটিংস, ডাউনলোড থেকে বোঝা গেল যে, Roz Ghan অ্যাপসটি সত্যিকার অর্থেই ভালো একটি আর্নিং অ্যাপস। বর্তমানেও অনেক পরিমাণ লোক Roz Ghan অ্যাপসটিকে ব্যবহার করছে। এই Roz Ghan এর মাধ্যমে টাকা আয় করার উপায় হচ্ছে-

  • Apps install টাকা আয়
  • pay games
  • read news
  • complete survey tasks
  • walking task
  • puzzkle task ইত্যাদি কাজ করে টাকা আয় করতে পারবেন।

মূলত উপরোক্ত উল্লেখিত মাধ্যমগুলোর মাধ্যমে আপনি Roz Ghan অ্যাপসে আয় করতে পারবেন। এছাড়াও এর অনেকগুলো সুবিধা রয়েছে। যেমন আপনি যখন Roz Ghan appsটি ইনস্টল করে প্রথম লগ ইন করবেন, তখন আপনি সাথে সাথে ৫০ টাকা পেয়ে যাবেন। শুধু তাই নয়, আপনাকে এরা রেফার করার সুযোগ দিচ্ছে। অর্থাৎ যখন Roz Ghan অ্যাপসটি অন্য কাউকে রেফার করবেন এবং তারা ইনস্টল করে লগইন করবে, তখন আপনি সাথে সাথে আবার ১২ টাকা পেয়ে যাবেন। এভাবে যত বেশি রেফার করা যায় ততো বেশি আয়। মূলত জানতে পারলাম যে Roz Ghan অ্যাপস এর মাধ্যমে আমরা কিভাবে টাকা আয় করতে পারি।

Current Rewards apps

গেইমস খেলে অ্যাপস এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম! অবশ্যই শোনলেই অবাক লাগার কথা। কেননা এতোদিন জেনে আসছি কিছু প্রিমিয়াম গেইমস premium games রয়েছে, যেগুলো খেলতে টাকার প্রয়োজন। কিন্তু যখন শুনি যে গেইমস খেলে উল্টো আমরা টাকা পাবো, সেটা অবশ্যই এক প্রকার সারপ্রাইজিং একট ব্যাপার। হ্যাঁ, Current Rewards appsটি হলো এমনই একটি অ্যাপস, যার মাধমে আমরা গেইমস খেলে টাকা আয় করতে পারি।

তবে এটা যে শুধু গেইমস খেলার মধ্যে আবদ্ধ নই। পাশাপাশি গান শুনেও টাকা আয় করতে পারেন। আবার অন্যকে রেফার করেও টাকা আয় করতে পারেন। যদি আপনি অন্য কাউকে রেফার করেন এবং সেই ব্যক্তি অ্যাপসটিকে ইনস্টল করে গান শুনে এবং গেইমস খেলে তাহলে ঐ ব্যক্তি মোট ইনকামের ৫% আপনি পেয়ে যাবেন। বর্তমানে গুগল প্লে স্টোরে এটির রেটিং হলো ৪.৭ স্টার। অর্থাৎ বেশ ভালো একটি অনলাইনে টাকা করার মোবাইল অ্যাপস।

Google Opinion Rewards apps

Google Opinion Rewards অ্যাপস এর নামটি দেখলেই বোঝা যায়, গুগল যেন কি বিষয়ে আপনার থেকে মতামত নিতে চায়। হ্যাঁ, আপনি ঠিক ধরেছেন। এটি হলো মূলত গুগলেরই একটি সার্ভিস। গুগল Google Opinion Rewards অ্যাপসটিকে তৈরি করেছে মূলত বিভিন্ন রকম সার্ভে করার জন্য। কিন্তু গুগল ইউজারদের সুবিধার্থে এখানে ইনকামের একটি পথ খুলে দিয়েছে। কিভাবে?

Read More  Computer tips in Bangla | কম্পিউটার দ্রুত করুণ

আপনি যখন Google Opinion Rewards অ্যাপসটি ইনস্টল করবেন, তখন আপনি অ্যাপসটিতে বেসিক কিছু তথ্য দিয়ে ওপেন করবেন। এরপর গুগল আপনার লোকেশন, ধরণ ইত্যাদি অনুযায়ী বিভিন্ন রকম সার্ভের জন্য আপনাকে নোটিফিকেশন এর মাধ্যমে জানিয়ে দিবে। আপনি যদি সেই সার্ভে তে অংশগ্রহণ করেন, তাহলে আপনি বাংলা টাকায় ৮০৳ অবধি পেতে পারেন। তবে আপনাকে সার্ভে নিয়ে কোনো রকম চিন্তে করতে হবে না। গুগল নিজে থেকেই নতুন নতুন সার্ভে সম্পর্কে আপনাকে খুব তাড়াতাড়ি নোটিফিকেশনের মাধ্যমে জানিয়ে দিবে। সুতরাং Google Opinion Rewards এর মাধ্যমেও টাকা আয় করা সম্ভব।

Poll Pay apps

Poll Pay হলো আরেকটি দারুণ সার্ভে অ্যাপস। আপনি সার্ভে করে টাকা আয় করতে চাইলে Poll Pay অ্যাপসটি ব্যবহার করতে পারেন। এর ব্যবহার খুবই সোজা। পৃথিবীতে প্রতিনিয়ত নানা রকম সার্ভে চলে। সেই সার্ভে গুলো Poll Pay তুলে ধরে জনগণের নিকট। এখন আপনি যদি সত্যিকার অর্থে অনলাইনে আয় করতে চান, তাহলে আপনি Poll Pay এর মাধ্যমে সহজ কিছু সার্ভেতে অংশগ্রহণ করে টাকা আয় করতে পারেন।

ব্যাপারটা খুবই সহজ। মূলত সেই অ্যাপসে আপনাকে সার্ভেতে অংশগ্রহণ করতে হবে। সার্ভেতে আপনাকে সহজ সহজ কিছু সার্ভের উত্তর দিতে হবে। যার ফলে নির্দেষ্ট পরিমাণ একটি আয় আপনার একাউন্টে চলে আসবে। এভাবেও Poll Pay অ্যাপস এর মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারেন।

Earn Talktime ‍apps

Earn Talktime অ্যাপসটির দ্ধারাও টাকা আয় করতে পারেন। এই অ্যাপসটির অন্যতম একটি আয়ের নমুনা হলো রেফার করা কোড এর মাধ্যমে অন্যদের ব্যবহার করার সুযোগ দেওয়া। Earn Talktime টিতে প্রবেশের পর দেখবেন refer and code নামক একটি অপশান রয়েছে। সেখান থেকে আপনি আপনার ইচ্ছানুযায়ী রেফার লিংক অথবা কোড তৈরি করতে পারেন। এবং সেই কোড বা লিংকটিকে অন্যদের নিকট সেন্ড করতে পারেন। এতে তাঁরা যখন আপনার রেফার লিংক বা কোড পাবে তখন তারাও Earn Talktime অ্যাপসটি ব্যবহার করবে আর আপনি কিছু ইনকাম করবেন।

এই অ্যাপসটির মাধ্যমে শপিং করা যায় প্রচুর পরিমানে ক্যাশ ব্যাকের মাধ্যমে । তাই অনেকের নিকট ক্রমাগত এটি জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। এছাড়াও যদি Earn Talktime অ্যাপসটি ডাউনলোড করেন, তাহলে আপনি কিছু টাকা আয় করতে পারেন।

মূলত এভাবেই অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডাউনলোড Android Apps download করে টাকা আয় করা যায়। এছাড়ও আরো অনেকগুলো অ্যাপস রয়েছে, যেগুলোর মাধ্যমে আপনারা টাকা আয় করতে পারবেন। আজকের পর্বে এই ১০টি ছিল টাকা আয় করার apps.

টাকা আয় করার apps সম্পর্কে শেষ কথা

টাকা আয় করার apps সম্পর্কে শেষ কথা

আজকের আর্টিকেলে উল্লেখিত প্রতিটি অ্যাপস দ্বারা আপনার সামান্য স্মার্ট ফোন দ্ধারা টাকা আয় করতে পারবেন। এখানে সবেচেয়ে ভালো ১০ টি অ্যাপস best 10 mobile apps উল্লেখ করা হয়েছে, যেগুলোর মাধ্যমে যেকেউ চাইলেই টাকা আয় করতে পারে।

মূলত এমনিতে বাস্তব জীবনে আমরা প্রচুর অ্যাপস ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু এর বেশিরভাগই হলো সাধারণ অ্যাপস যেগুলো ব্যবহারে আমাদের কে উল্টো টাকা খরচ করতে হয়। কিন্ত যখনই আমরা উল্টো টাকা আয় করতে চেষ্টা করবো এসব অ্যাপস এর মাধ্যমে, তখন আমাদের কে এই রকম টাইপের উল্লেখিত অ্যাপসগুলোকে ব্যবহার করতে হবে। তবে বাংলাদেশ সহ বিশ্বে এরকম হাজার হাজার ফ্রড অ্যাপস কোম্পানি রয়েছে, যারা মানুষদের মাসের পর মাস খাটিয়ে কোনো রকম টাকা না দিয়ে মানুষকে ঠকিয়েছে। তাই এখানে এমন কিছু মোবাইল অ্যাপস এর নাম উল্লেখ করলাম, যেগুলো দ্ধার ফ্রড হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম রয়েছে। বলা চলে প্রায় নেই। কিন্তু আজকে আমি যেসব মোবাইল অ্যাপস উল্লেখ করেছি সেগুলো যখন আপনারা ব্যবহার করবেন, তখন অবশ্যই আপনাদের নিজ দায়িত্বে সেগুলো ব্যবহার করবেন। কেননা ইন্টারনেট জগতে কোনো কিছুতেই বর্তমানে ভরসা নেই। তাই যা করবেন, নিজ দায়িত্বে বুঝে-শুনে করবেন। সর্বোপরি, আশা করি আজকের টাকা আয় করার apps আর্টিকেলটি দ্ধারা সবাই বেশ ভালোভাবে উপকৃত হয়েছেন।

টাকা আয় করার apps সম্পর্কে জানতে

Leave a Comment