নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম | নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম

বিভিন্ন গ্রুপ বা ফোরামে প্রায়ই দেখা যায় মানুষজন প্রশ্ন করে কীভাবে তারা তাদের নগদ একাউন্ট বন্ধ করবে এবং বন্ধ করার সঠিক নিয়ম কী। এটা খুবই স্বাভাবিক যে একজন গ্রাহক যেকোনো সময়ে তার ইচ্ছানুযায়ী তাদের মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধও করতে পারে আবার চেঞ্জও করতে পারে। তবে যে ব্যাপারটা লক্ষ্যণীয় সেটা হলো কেউ ভালো ভাবে সেটা জানে না যে নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম। তো আজকের এই আর্টিকেলে স্পেসিপিকভাবে এই জিনিসটিই জানার চেষ্টা করবো ধাপে ধাপে।

নগদ হলো একটি লেনদেনের জন্য মোবাইল ব্যাংকিং সিস্টেম এবং এর ন্যায় বাংলাদেশে অনেকগুলো মোবাইল ব্যাংকিং সিস্টেম রয়েছে যেমন বিকাশ মোবাইল ব্যাংকিং, রকেট মোবাইল ব্যাংকিং, ডাচ বাংলা ইত্যাদি।

সাধারণত নগদ একাউন্ট বন্ধ করতে অনেকগুলো নিয়ম অনুসরণ করতে হয়ে এবং এ যাবতীয় সকল নিয়ম কানুন জানতে পুরো আর্টিকেলটি পড়ুন।

নগদ একউন্ট বন্ধ করতে গ্রাহকের যা যা লাগে

যে সিমে আপনার নগদ একাউন্টটি আছে এবং সেই সিমটি যে NID কার্ড দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা এই NID card টি লাগবে এবং এটি মিল থাকতে হবে।

নগদ একাউন্ট ডিলিট বা বন্ধ করতে হলে একাউন্টে কোনো রকম টাকা-পয়সা থাকা যাবে না অর্থাৎ একাউন্টে টাকার বা ব্যালেন্সের পরিমাণ শূণ্য থাকতে হবে।

নগদ একাউন্টের ব্যালেন্সের পরিমাণ শূণ্য কীভাবে করা যায়?

খুবই সোজা। ধরুণ আপনার নগদ একাউন্টে আছে মোট ৫০.৮৭ টাকা। এ মূহর্তে ব্যালেন্স শূণ্য করার জন্য আপনাকে ক্যাশ আউট বা সেন্ড মানি অথবা মোবাইল রিচার্জ করতে হবে। আবার সেন্ড মানি করতে যেহেতু ৫টাকা চার্জ লাগে সেহেতু সেন্ড মানি করার আগে ৫টাকা চার্জের জন্য রেখে পুরো টাকা সেন্ড মানি করে দেন। তাহলেই হয়ে গেলে আপনার নগদ ব্যালেন্স শূণ্য।

নোট: নগদ একাউন্টটি ডিলেট করার পূর্বে অবশ্যই নগদ একাউন্টটি দেখে নিবেন সঠিক নিয়মে

Read More  বিকাশ সেন্ড মানি অফার ২০২১ | সেন্ড মানির অফারগুলো জেনে নিন

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পদ্ধতি

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পদ্ধতি
  • একজন নগদ গ্রাহক যদি উপরের উল্লেখিত কার্যক্রম সম্পূর্ণ করে থাকে তাহলে তার জন্য প্রায়ই কাজ শেষ।
  • এখন গ্রাহককে তার নিকটস্থ নগদ কাস্টমার কেয়ার বা নগদ এজেন্টের কাছে যেতে হবে।
  • এবার তাদের কাছে আপনি আপনার নগদ একাউন্টটি বন্ধ করার কারণ বলুন এবং আরো বলুন এ মূহর্তে আপনি আপনার একাউন্টটি বন্ধ করে দিতে চান।
  • এবার আপনার কাজ প্রায়ই শেষ। এখন তারা তাদের নিজ উদ্যোগে আপনার নগদ একাউন্টটি ডিলিট বা বন্ধ করে দিবে।
  • সুতরাং উপরের বিষদ আলোচনা থেকে জানা গেলো যে কীভাবে একজন নগদ গ্রাহক খুব সহজেই তার নগদ একাউন্টটি ডিলিট বা বন্ধ করে দিতে পারে।

আপনি যদি একজন নগদ গ্রাহক হোন অথবা অন্য কোনো মোবাইল ব্যাংকিং এর গ্রাহক হয়ে থাকেনে তাহলে আপনি আমাদের সাইটের মোবাইল ব্যাংকিং এর সকল পোস্টগুলো পড়ে আসতে পারেন।

নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত

নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত

একজন সচেতন নগদ গ্রাহকের উচিত নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সম্পর্কে সম্পূর্ণ ডিটেইল জানা। কেননা ভবিষ্যৎ এ নগদের মাধ্যমে সে গ্রাহক টাকা লেনদেন করে থাকবে। তাই নগদ কর্তৃপক্ষও চায় ‍একজন গ্রাহক যেন নগদ সম্পর্কে সম্পূর্ণ একটা ধারণা গ্রাহকের থাকে। তেমনি আমরা চাই আপনি নগদ একাউন্ট সম্পর্কে জানুন।

মূলত উপরের নিয়মগুলো অনুসরণ করার মাধ্যমে আপনি আপনার নগদ একাউন্টটি বন্ধ করে দিতে পারেন। এখানে উল্লেখযোগ্য যে নগদ একাউন্টটি বন্ধ করে দেওয়ার যথেষ্ট কারণ থাকা দরকার। সেক্ষেত্রেই নগদ কর্তৃপক্ষ আপনার মোবাইলে থাকা একাউন্টটি বন্ধ করে দিবে। অন্যথায় এখানে উল্লেখিত পদ্ধতিটি কার্যকর না হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। সুতরাং নগদ একাউন্ট বন্ধ করার ‍পদ্ধতি জানার পর একাউন্টটি বন্ধ করার কারণ খুঁজে বের করুন।

নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য এই লিংকে ক্লিক করুণ এবং আমাদের পূর্বের করা পোস্ট টা দেখুন এবং নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন।

Read More  বিকাশ মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় হার | বিকাশ মুনাফা বা ইন্টারেস্ট

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম সম্পর্কে জানতে

Leave a Comment