শরীর ঠান্ডা রাখে যেসব খাবার (Foods that keep the body cool)

ডায়রিয়াসহ বিভিন্ন ধরনের পানিবাহিত রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয় প্রচন্ড গরমে। প্রতিদিন বাড়ছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা । শরীর ঠান্ডা রাখে যেসব খাবার এ সময়ে খাবার ও চলাফেরায় একটু বাড়তি সচেতনতা জরুরি ।সাবধানে চলাফেরা ও গরমের উপযোগী খাবার  এ ধরনের বিপর্যয় থেকে আপনাকে দেবে বাড়তি সুরক্ষা।

ঘামের সঙ্গে গরমে প্রচুর পানি বের হয়ে যায় শরীর থেকে । এতে শরীরে দেখা দিতে পারে পানিশূন্যতা । চিকিৎসক ও পুষ্টিবিদেরা এ পরিস্থিতিতে বেশি করে পানি, ফল ও পানিজাতীয় খাবার খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন । বিশেষজ্ঞদের মতে, একজন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির দিনে তিন লিটারের বেশি পানি পান করা প্রয়োজন। তাই নিয়মিত খাদ্যতালিকায় এমন সব খাবার রাখা দরকার, যা পানির অভাব পূরণ করবে এবং শরীর রাখবে ঠান্ডা।

গরম থেকে স্বস্তি পাওয়ার জন্য  আমাদের অনেকে বাইরে নানা কিছু খেয়ে থাকেন। অনেকে শরীর ঠান্ডা রাখে যেসব খাবার ফুটপাতের নানা রকম শরবত ও রস খেয়ে থাকে। তবে এতে হিতে বিপরীত হতে পারে; শরীর সুস্থ হওয়ার বদলে অসুস্থ হয়ে পড়তে পারে। এসব খাবার শরীরের জন্য খুবই ক্ষতিকর, যা ডায়রিয়াসহ পানিবাহিত রোগের কারণ হতে পারে। তাই গরমে খেতে হবে বুঝে শুনে। গরমে সুস্থ থাকতে মসলা জাতীয় খাবার বাদ দিয়ে পানীয়ের উপরেই নির্ভর করতে বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

বাঙ্গি: (bangi)

খুবই সহজলভ্য একটি খাবার বাঙ্গি। দামেও তুলনামূলক সস্তা। বাঙ্গি শরীর ঠান্ডা রাখতে  খুবই উপকারী। বাঙ্গিতে আছে প্রচুর পটাশিয়াম ও মিনারেল । তাই গরমে নিয়মিত  বাঙ্গির শরবত খেলে খাবারে অরুচি, অনিদ্রা, আলসার ও অ্যাসিডিটি দূর হয়।

ডাবের পানি: (Canned water)

ডাবের পানি শরীর ঠান্ডা রাখতে  খুবই উপকারী।ডাবের পানিতে রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমাণ পটাশিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম,যা  শরীর ঠান্ডা করবে।

তরমুজ: (watermelon)

তরমুজের ৯১ দশমিক ৫ শতাংশই পানি, যা শরীর ঠান্ডা করতে সাহায্য করবে। আরও আছে ভিটামিন ও খনিজ লবণ। এই প্রচন্ড গরমে আপনাকে স্বস্তি দেবে যদি নিয়মিত খাদ্যতালিকায় তরমুজ রাখতে পারেন।

Read More  সরকারি ভাবে রোমানিয়া যাওয়ার উপায় ২০২৪

কাঁচা আম: (raw mango)

কাঁচা আমে প্রচুর পটাশিয়াম,ভিটামিন সি ও ম্যাগনেশিয়াম থাকেযা শরীর ঠান্ডা করতে সহায়তা করে।

আখের গুড়: (sugarcane molasses)

আখে রয়েছে Fruktose ও Glucose, যা আমাদের শরীরের তাপমাত্রা হ্রাসে সাহায্য করে।আখের গুড় দিয়ে শরবত পান করলে শরীর ঠান্ডা থাকে।

শসা: (cucumber)

শসা শরীরের পানির অভাব মেটাতে সাহায্য করে।শসায় রয়েছে ৯৬ দশমিক ৭ শতাংশ পানি ।শসা ফসফরাস, জিংক, ক্যালসিয়াম ও অন্য বেশ কয়েকটি খনিজ পদার্থের ভালো উৎস হিসেবে বিবেচিত । বাইরে বের হয়ে গরম অনুভূত হলে শসা খেতে পারেন। এতে মনের সঙ্গে সঙ্গে শরীরও ঠান্ডা থাকবে।গরমে খাদ্যতালিকায় শসার সালাদরাখতে পারেন।

পুদিনাপাতা : (mint leaves)

পুদিনাপাতা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও ভিটামিন এ–তে পরিপূর্ণ। অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এমন একটি উপাদান, যা অতিরিক্ত গরমে ত্বকের যে ক্ষতি হয়, তা পুষিয়ে দিতে সাহায্য করে।

পুদিনাপাতা

ঠান্ডা ও প্রশান্তির জন্য পুদিনাপাতা বেশ ভালো খাবার। গরম কমাতে নানাভাবে পুদিনাপাতা খাওয়ার অভ্যাস করতে পারেন। এক গ্লাস ঠান্ডা পানির সঙ্গে পুদিনাপাতার গুঁড়া মিশিয়ে খেলেও ভালো ফল পাবেন। এ ছাড়া বাজারে ‘মিন্ট টি’ কিনতে পাওয়া যায়, সেটা খাওয়ার অভ্যাস করলেও গরমে প্রশান্তি পাবেন।পেটের অভ্যন্তরীণ তাপমাত্রা কমিয়ে খাবার হজমে সাহায্য করে।

সবুজ শাক : (green vegetables)

সবুজ শাকে ভিটামিন ‘এ’, ‘সি, ‘কে’ এবং ফলিক অ্যাসিড পাওয়া যায় যা শরীরের জন্য দারুন উপকারী।সবুজ পাতার শাকে কম ক্যালরির পাশাপাশি ৯২ শতাংশ পানি থাকে। এটি আমাদের শরীরকে ঠান্ডা এবং ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে এটি আমাদের শরীরের তাপমাত্রাও স্বাভাবিক রাখে।

দই : (Yogurt)

দইও গরমের খাবার হিসেবে  একটি ভালো খাবার। বিশেষ করে টকদই। দই দিয়ে তৈরি লাচ্ছিও খেতে পারেন। বাজারে নানা ধরনের দইয়ের পানীয় পাওয়া যায়, সেসবও গরমের খাবার হিসেবে আমরা খেতে পারি। তিনবেলা নিয়মিত খাবারের পাশাপাশি কিছুটা দকদই খেলেও ভালো পাওয়া যায়। দইয়ে থাকা ৮৫ শতাংশ পানি গরমে শরীরে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

Read More  (বর্তমান) বাংলাদেশের সেরা সরকারি কলেজের তালিকা

পরিশেষেঃ

শরীর ঠান্ডা রাখে যেসব খাবার গরমে এমন খাবারই খাওয়া উচিত, যাতে পর্যাপ্ত পানি আছে।  গরমে ঘাম হলে শরীর থেকে প্রচুর পরিমাণ পানি বের হয়ে যায়। তাছাড়া কিছু খাবার আছে যেগুলো শরীরের গরম কমাতেও সাহায্য করে। এছাড়া শুধু তৃষ্ণা মিটলেই তো চলবে না, গরমে এমন খাবার খেতে হবে যা শরীরও ঠান্ডা রাখবে আবার খাবার হজমও হবে সহজে।

তাই গরম থেকে স্বস্তি পাওয়ার জন্য আমাদের এমন কিছু খাবার খাওয়া দরকার যা গরমে  ঠিকঠাক প্রশান্তি দেবে।

খেজুরের পুষ্টিগুণ এবং স্বাস্থ্য উপকারিতা

Leave a Comment