স্বাস্থ্য ভালো রাখার সহজ উপায় আপনার যা জানা দরকার (Simple way to improve health is what you need)

আপনার স্বাস্থ্য ভালো রাখা / ফিটনেসের লক্ষ্য যাই হোক না কেন, এই টিপস গুলি আপনাকে সেই লক্ষ্যে পৌঁছাতে সাহায্য করবে। স্বাস্থ্য ভালো রাখার সহজ উপায় সমস্ত টিপস গুলি মুখস্থ  করার দরকার নেই ,তবে প্রতি সপ্তাহে আপনার দৈনন্দিন রুটিনে কয়েকটি অন্তর্ভুক্ত করার চেষ্টা করুন এবং আপনার স্বাস্থ্যের পরিবর্তন দেখুন।

স্বাস্থ্য ভালো রাখার  ৫০ সহজ টি  উপায়

 1.একটি স্বাস্থ্যকর সকালের নাস্তা খান: (Eat a healthy breakfast)

সকালের  স্বাস্থ্যকর নাস্তা খাওয়া আপনার দিনটি  ভালোভাবে শুরু করাবে  এবং আপনাকে সারা দিনের জন্য জ্বালানী দেয় যা ভাল সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে। এটি স্বাস্থ্য ভালো রাখার সহজ উপায়।

2. হাটার অভ্যেস করুন : (Practice walking)

যখনই পারেন, যেখানেই পারেন হাঁটুন। একটি ইমেল পাঠানোর পরিবর্তে সহকর্মীর ডেস্কে যান। আপনাকে দীর্ঘ বা তীব্র হাঁটাহাঁটি করতে হবে না, তবে আপনার দিনে যখনই  সুযোগ পাবেন হাঁটার চেষ্টা করুন।

হাঁটা একটি শান্ত কার্যকলাপ যা আপনাকে কোন সরঞ্জামের প্রয়োজন ছাড়াই সুস্থ থাকতে সাহায্য করে। নিয়মিত 30-মিনিট হাঁটা উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে এবং অস্টিওপরোসিসের অগ্রগতি ধীর করতে সাহায্য করতে পারে। 

3.রাতের পূর্ণ ঘুমের পরিবেশকে নিশ্চিত করুন: (Ensure a full night’s sleep environment)

অবাঞ্ছিত আওয়াজ বন্ধ করা, আপনার ঘরকে ঠান্ডা রাখা এবং আপনার শোবার ঘরটি যথেষ্ট অন্ধকার তা নিশ্চিত করা হল আপনার ঘুমের পরিবেশকে নিখুঁত করতে সাহায্য করার উপায়।

4.ইতিবাচক মানুষের সাথে সময় কাটান: (Spend time with positive people)

একটি নতুন অভ্যাস বা জীবনধারা শুরু করার সময়, এমন লোকেদের সাথে নিজেকে ঘিরে রাখা গুরুত্বপূর্ণ যারা আপনাকে সমর্থন করে এবং আপনাকে উৎসাহ  দিতে পারে। 

5. লিখুন এবং আপনার অগ্রগতি পর্যালোচনা করুন:

আপনি যা অর্জন করেছেন তা লিখে  রাখুন । এগুলো আপনাকে অনুপ্রাণিত করবে এবং  আপনার অগ্রগতি দেখতে  ও  লক্ষ্যগুলিতে ফোকাস রাখতে সাহায্য  করবে ।

6. ধীরে ধীরে খাবার পরিবর্তন করুন: (Change foods gradually)

একবারে সবকিছু পরিবর্তন করার চেষ্টা করবেন না! আপনি যেখানে যেতে চান সেখানে যেতে সাহায্য করার জন্য প্রতি সপ্তাহে বা মাসে কয়েকটি ছোট ছোট  ভাগে ভাগ  করুন।  

7. দিনে কমপক্ষে আট গ্লাস পানি পান  করুন: (Drink at least eight glasses of water a day)

প্রতিটি ব্যক্তির প্রয়োজনীয় পরিমাণ পানি  পরিবর্তিত হতে পারে, তবে দিনে কমপক্ষে আট গ্লাস পানি পান একটি ভাল নিয়ম । যা আপনার স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করবে ।

8.ইতিবাচক চিন্তা দিয়ে আপনার দিন শুরু করুন: (Start your day with positive thoughts)

শুধু নিজেকে সেই জিনিসগুলি মনে করিয়ে দিন যা আপনাকে শান্ত করার অনুভূতি দিতে পারে বা আপনার মুখে হাসি ফোটাতে পারে।

9. লিফট এর পরিবর্তে সিঁড়ি ব্যবহার করুন: (Use the stairs instead of the elevator)

নিয়ম মেনে সিঁড়ি ব্যবহার একটি দুর্দান্ত ব্যায়াম। আপনার রুটিনে সিঁড়ি দিয়ে ওঠানামা যোগ করা আপনার কন্ডিশনারও বাড়াতে পারে! স্বাস্থ্য ভালো থাকবে।

10. প্রতি রাতে একই সময়ে বিছানায় যান: (Go to bed at the same time every night)

প্রত্যেকের সময়সূচী পরিবর্তিত হয়, কিন্তু প্রতি সন্ধ্যায় একই সময়ে ঘুমের প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য আপনার শরীরকে প্রশিক্ষণ দেওয়া আপনাকে আরও দ্রুত ঘুমিয়ে পড়তে সাহায্য করতে পারে ।

11. সংগঠিত হন এবং অগ্রাধিকার এবং সময়সীমা সেট করুন: (Get organized and set priorities and deadlines) 

স্ট্রেস আপনার ফিটনেস এবং ডায়েট প্ল্যানের সাথে লেগে থাকাকে আরও কঠিন করে তোলে এবং সংগঠনের অভাব আপনার চাপকে বাড়িয়ে তুলতে পারে। তাই, কিছু প্রকল্পের রূপরেখা তৈরি করুন (বাড়ি, আর্থিক, কাজ, ইত্যাদি) যা আপনাকে আপনার দৈনন্দিন জীবনের অংশগুলিকে সংগঠিত করতে এবং মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করতে পারে।

12. ধূমপান বন্ধ করুন: (Stop smoking)

ধূমপান ত্যাগ করা শুধুমাত্র আপনার ফিটনেস লেভেল বাড়াতে সাহায্য করতে পারে না বরং আপনার প্রতিদিনের স্বাস্থ্যও বাড়াতে পারে। 

13. Take Naps  :

ঘুমের বঞ্চনা আপনার জীবনের সমস্ত দিককে প্রভাবিত করতে পারে  যেমনঃ  আপনার ডায়েট, ওয়ার্কআউট, আপনার স্ট্রেস ইত্যাদি। একটি 30 মিনিটের ঘুম বা এমনকি শুয়ে থাকার একটি বর্ধিত বিশ্রামের সময়কাল (একটি ঘুম ছাড়া) সতর্কতা এবং কর্মক্ষমতা উন্নত করতে  পারে  ।

14. এমন লোক এবং জিনিসগুলি এড়িয়ে চলুন যা আপনাকে চাপ দেয়: (Avoid people and things that stress you out)

আপনার জীবনের চাপগুলি চিহ্নিত করুন এবং দূরত্ব বজায় রাখার চেষ্টা করুন। এটি করা সবসময় সম্ভব নয়, তবে আপনার চাপ সৃষ্টি করে এমন কিছু অপসারণ করা একটি উন্নতি। এতে আপনার স্বাস্থ্য ভালো থাকবে।

15. হাসুন এবং হাসুন: (Smile and laugh)

সেই মুহূর্তগুলি উদযাপন করুন যা আপনাকে আনন্দ দেয়। আপনার ইতিবাচক আবেগ প্রকাশ করার জন্য সময় নেওয়া আপনার স্বাস্থ্য এবং সুখকে প্রভাবিত করতে পারে। হাসি স্ট্রেস মোকাবেলা করতে সাহায্য করে ।

16. প্রতিটি খাবারে কার্বোহাইড্রেট, চর্বি, প্রোটিন ইত্যাদির ভারসাম্য বজায় রাখুন: (Maintain a balance of carbohydrates, fats, proteins, etc. in each meal)

ফুড ট্র্যাকার অ্যাপগুলি আপনাকে আপনার খাবারের পরিকল্পনা হিসাবে বিভিন্ন খাবারের সংমিশ্রণ দেখতে সহায়তা করে।

17. আপনার খাবারে লবণ যোগ করবেন না: (Do not add salt to your food)

বেশিরভাগ প্যাকেজ করা খাবারে উচ্চ মাত্রার সোডিয়াম রয়েছে, তাই আরও যোগ করলে আপনার খাওয়ার পরিমাণ বাড়ে। 

18. ডার্ক চকলেটকে আপনার ‘ভোজ খাবার’ বানিয়ে ফেলুন: (Make dark chocolate your ‘feast food’)

ডার্ক চকোলেটের সবচেয়ে বড় সুবিধা হল এটি রক্তচাপ কমাতে পারে । এই স্বাস্থ্য সুবিধাগুলি কাটাতে কমপক্ষে 70% ক্যাকো শতাংশের সাথে ডার্ক চকলেটের লক্ষ্য রাখুন।

19. আপনার দাঁত ব্রাশ করুন এবং ফ্লস করুন:

পিরিওডোনটাইটিস বা মাড়ির প্রদাহ, কার্ডিওভাসকুলার রোগের জন্য একটি উল্লেখযোগ্য ঝুঁকির কারণ হিসাবে বিবেচিত হয়। যারা খুব কমই দাঁত ব্রাশ করেন তাদের কার্ডিওভাসকুলার ইভেন্ট হওয়ার সম্ভাবনা উল্লেখযোগ্যভাবে বেশি থাকে। 

20. আপনার আবেগ অনুসরণ করুন এবং আপনি যা ভালবাসেন তা করুন: (Follow your passion and do what you love)

যে সমস্ত লোকেরা উদ্দেশ্য নিয়ে তাদের জীবন যাপন করে এবং বিশ্বাস করে যে তাদের জীবনের অর্থ বা উদ্দেশ্য রয়েছে তারা উচ্চতর জীবনের সন্তুষ্টি এবং মানসিক সুস্থতার রিপোর্ট করে।

21. বেশি মসলাযুক্ত খাবার খান: (Eat more spicy food)

গরম মরিচে ক্যাপসাইসিন থাকে, এবং মরিচ যত বেশি গরম হয় তাতে তত বেশি ক্যাপসাইসিন থাকে। ক্যাপসাইসিনের অনেকগুলি স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে, যেমন প্রদাহ হ্রাস, ব্যথা উপশম, কনজেশন রিলিফ, উন্নত অন্ত্রের স্বাস্থ্য, কার্ডিওপ্রোটেকশন এবং চর্বি বার্ন করা। স্বাস্থ্য ভালো রাখার সহজ উপায়। এতে আপনার স্বাস্থ্য ভালো থাকে।

22. টিভি কম দেখুন: (Watch less TV)

আপনি আপনার টিভি দেখার কিছু প্রতিস্থাপন করতে নিজেকে চ্যালেঞ্জ করতে পারেন , সেই সময়টা  অন্য গুরুত্ব পূর্ণ কাজে লাগাতে পারেন  ।

23. ধ্যান করুন: (meditate)

দিনে অন্তত পাঁচ মিনিট ধ্যান করার চেষ্টা করুন। আপনার চোখ বন্ধ করুন এবং কিছু সময়ের জন্য একটি জিনিস (যেমন আপনার শ্বাস) আপনার মনোযোগ আনুন। যখন আপনার মন ঘুরে বেড়াতে শুরু করে (এবং এটি হবে!) কেবল এটি যেতে দিন এবং আপনার শ্বাসে ফিরে আসুন।

24. জার্নাল লিখুন : (Write a journal)

আপনার নেতিবাচক চিন্তাগুলিকে আটকে রাখার পরিবর্তে সেগুলি সম্পর্কে লিখুন৷ নেতিবাচক অভিজ্ঞতা, চিন্তাভাবনা এবং সমস্যাগুলি লিখে রাখা আপনাকে প্রক্রিয়া করতে, সমস্যা সমাধান করতে এবং মোকাবেলা করতে সহায়তা করে ৷ 

25. প্রতিটি খাবারে সবজি যোগ করার চেষ্টা করুন: (Try adding vegetables to every meal)

সবজি সব খাবারের মধ্যে সবচেয়ে পুষ্টিকর । এই খাদ্য গোষ্ঠীটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন এবং খনিজগুলির একটি দুর্দান্ত উৎস , তাই আপনার ডায়েটে বৈচিত্র্য যুক্ত করুন! যা আপনার স্বাস্থ্য ভালো রাখবে।

26. একটি রুটিন তৈরি করুন : (Create a routine)

সকালের একটি রুটিন তৈরি করা আপনাকে প্রতিদিন খুব সুন্দর ভাবে দিন শুরু করতে সাহায্য করে। এমনকি দরজা থেকে বের হওয়ার আগে আপনি প্রথম জিনিসটি পিছনে পাবেন না। এই সময়টি ব্যায়াম করার জন্য বা দিনের জন্য আপনি যে লক্ষ্যগুলি সেট করেছেন তা পূরণ করতে ব্যবহার করুন।

27. আপনার দৃষ্টি ভঙ্গি উন্নত করুন : (Improve your vision)

স্বাস্থ্যগত কারণে হোক বা শুধু আরও আত্মবিশ্বাসী দেখতে, আপনার দৃষ্টি ভঙ্গিতে মনোযোগ দেওয়া উচিত। এতে আপনার স্বাস্থ্য ভালো থাকবে।

28. বেশি ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড খান: (Eat more omega-3 fatty acids)

ওমেগা -3 ফ্যাটি অ্যাসিডগুলি দীর্ঘকাল ধরে  সম্ভাব্য স্বাস্থ্য সুবিধার জন্য প্রশংসিত হয়েছে , যার মধ্যে প্রদাহ কমানো, হৃদরোগ এবং আর্থ্রাইটিসের মতো রোগের ঝুঁকি হ্রাস করা সহ মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের উপর তাদের ইতিবাচক প্রভাব রয়েছে। 

29. আসল খাবার খান (Real Food): 

ন্যূনতম প্রক্রিয়াজাত খাবার কিনুন এবং Real Food খান – শাকসব্জি, ফল, মাছ , মাংস, বাদাম, ইত্যাদি

30. একটি ব্যাকআপ পরিকল্পনা তৈরি করুন: (Create a backup plan)

সাধারণ বাধাগুলি একটি ফিটনেস প্ল্যানকে লাইনচ্যুত করতে পারে: সময় নেই, অনুপ্রেরণা নেই, খুব কম জ্ঞান, তহবিলের জন্য আটকে থাকা ইত্যাদি। এই সমস্ত বাধাগুলির একটি সমাধান রয়েছে !

  • খুব ব্যস্ত/সময় নেই: সকালে কাজ করার চেষ্টা করুন। একটু আগে ঘুম থেকে উঠা এবং আপনার ওয়ার্কআউটে ফিট করা আপনার সারাদিন ধরে চলতে পারে এমন কোনো বাধা এড়াতে সাহায্য করে। 
  •  কোন প্রেরণা/জ্ঞানের অভাব নেই: একজন প্রশিক্ষকের সাথে কাজ করার চেষ্টা করুন!
  • সীমিত তহবিল: সংগ্রহ করার চেষ্টা করুন ।

31. আপনার ক্যাফিন গ্রহণ নিরীক্ষণ করুন: (Monitor your caffeine intake)

প্রত্যেকেই বিভিন্ন স্তরের ক্যাফিনে সাড়া দেয় । আপনার ক্যাফিন গ্রহণের পরিমাণ সংযত করা আপনাকে আরও ভাল ঘুম পেতে এবং দিনের বেলা আরও সতর্ক বোধ করতে সাহায্য করতে পারে। এতে আপনার স্বাস্থ্য ভালো থাকবে।

32. বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিন:(Chat with friends)

 আপনার একটি সামাজিক নেটওয়ার্ক থাকা গুরুত্বপূর্ণ। পরিবার, বন্ধুবান্ধব এবং আপনার সম্প্রদায়ের সাথে আপনার সম্পর্কের শক্তি আপনার সুস্থতা এবং শারীরিক স্বাস্থ্যকে সমর্থন করে।

33.  স্বাস্থ্যকর খাবারের পরিকল্পনা করুন: (Plan healthy meals)

প্রতি সপ্তাহের জন্য একটি পরিকল্পনা তৈরি করা মুদির দোকানে আপনার কেনাকে সীমিত করতে সাহায্য করে এবং আপনার পরিকল্পনায় লেগে থাকতে সাহায্য করে ।

34. আপনার বাড়ির কাজ করুন: (Do your homework)

এটি যতটা সহজ শোনায়, ততটা না । বাড়ির কাজগুলি উল্লেখযোগ্য ক্যালোরি পোড়াতে যোগ করতে পারে। ঝাড়ু দেওয়া, উঠোনের কাজ বা পায়খানা পরিষ্কার করার মতো কাজগুলি একটু বাড়তি ব্যায়াম করার সব দুর্দান্ত উপায়।

35. প্রতিদিন একই সময়ে ঘুম থেকে ওঠার চেষ্টা করুন: (Try to wake up at the same time every day)

প্রতিদিন একই সময়ে ঘুম থেকে ওঠার এবং বিছানা থেকে উঠার একটি ছন্দে আপনার শরীরকে নিয়ে আসা হল আপনার একটি ভাল ঘুম নিশ্চিত করার জন্য আপনি যা করতে পারেন তার মধ্যে একটি। 

36.ঘুমানোর আগে ভারী খাবার খাবেন না: (Do not eat heavy meals before going to bed)

ঘুমানোর আগে ভারী খাবার আপনার শরীরকে ভারী  করার চেষ্টা করে এবং ঘুমানো কঠিন করে তোলে। আপনি যদি ক্ষুধার্ত হন তবে আপনার জলখাবার এড়িয়ে যাওয়ার দরকার নেই, শুধু চর্বিযুক্ত, মশলাদার এবং চিনিযুক্ত খাবার এড়িয়ে চলুন । আমাদের সকলের ভাল ভাবে স্বাস্থ্য ভালো রাখার সহজ উপায় সম্পর্কে জানা দরকার।

37. অস্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস পরিহার করুন: (Avoid unhealthy snacks)

অস্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস এর  পরিবর্তে, বাদাম, ফল এবং সবজি  খাবার  চেষ্টা করুন। আপনি যদি চলতে চলতে আপনার জীবন যাপন করেন, তাহলে সপ্তাহান্তে প্রাক-প্যাকেজ করা স্ন্যাকস তৈরি করার চেষ্টা করুন । শসার টুকরো, গাজর, বাদাম, বেরি ইত্যাদির কথা চিন্তা করুন।

38. আপনার ব্যক্তিগত লক্ষ্যের দিকে কাজ করুন: (Work towards your personal goals)

আপনার মূল্যবোধ এবং উদ্দেশ্যের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ ব্যক্তিগত লক্ষ্যগুলি সেট করুন এবং সেগুলি অনুসরণ করুন! একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্য মাথায় রাখা (উন্নত স্বাস্থ্য, ব্যক্তিগত বৃদ্ধি, ইত্যাদি) আপনাকে প্রতিদিন আপনার সমস্ত প্রচেষ্টাকে ফ্রেম করতে সহায়তা করতে পারে। 

39 ঘুমানোর আগে উজ্জ্বল আলো এড়িয়ে চলুন:  (Avoid bright light before sleeping)

আপনার শরীর কীভাবে ঘুমের জন্য প্রস্তুত করে আলো তা প্রভাবিত করে। তাই ঘুমানোর আগে আপনার স্ক্রিন চালু রাখলে আপনার ঘুমের চক্র ব্যাহত হতে পারে। আপনি ঘুমিয়ে পড়ার দুই ঘন্টা আগে আপনার ডিভাইসগুলি নিচে রেখে টিভি বন্ধ করার চেষ্টা করুন।

40. ভাল স্বাস্থ্যবিধি অনুশীলন করুন: (Practice good hygiene)

পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা সম্পর্কে সচেতন হওয়া আপনার জন্য ভাল। প্রতিদিন ঝরনা, সঠিক খাবার পরিচালনা, হাত ধোয়া এবং নিয়মিত পরিষ্কার করা জীবাণু এবং সংক্রমণের বিস্তার বন্ধ করতে সাহায্য করে ।

41. “স্বাস্থ্যকর” খাবার কেনা বন্ধ করুন: (Stop buying “healthy” foods)

প্যাকেজিং বিশ্বাস করবেন না, কারণ অনেক সময় সেই স্বাস্থ্যকর খাবারগুলি অনেক অস্বাস্থ্যকর জিনিস লুকিয়ে রাখে। আসলে কী খাবারকে “স্বাস্থ্যকর” করে তোলে এবং ভাল জিনিসগুলিতে ফোকাস করে সে সম্পর্কে নিজেকে শিক্ষিত করার জন্য আপনার সময় ব্যয় করুন।

42. যোগব্যায়াম করা শুরু করুন: (Start doing yoga)

যোগব্যায়াম হল এক ধরনের ব্যায়াম যা শ্বাসের সাথে শরীরের নড়াচড়াকে মিশ্রিত করে। উন্নত নমনীয়তা এবং ভারসাম্য, চাপ হ্রাস এবং শক্তি বৃদ্ধি, ফোকাস এবং আত্ম-সচেতনতা সহ আপনার ব্যায়ামের রুটিনের অংশ হিসাবে যোগ ব্যায়াম অনুশীলন করার অনেক সুবিধা রয়েছে।

43. প্রোবায়োটিক যোগ করুন: (Add probiotics)

প্রোবায়োটিকগুলি আপনার হজমকে উন্নত করতে পারে এবং আপনার অন্ত্রের ‘খারাপ’ ব্যাকটেরিয়াগুলির বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করতে পারে, যার ফলে ইমিউন ফাংশন উন্নত হয়। স্বাস্থ্য ভালো রাখার সহজ উপায় গুলো আমাদের সকলের ভাল ভাবে জানা উচিৎ। এমনও প্রমাণ রয়েছে যে প্রোবায়োটিকগুলি উদ্বেগ থেকে মুক্তি দিতে ভূমিকা পালন করতে পারে।

44. দুই মিনিটের নিয়ম অনুসরণ করুন: (Follow the two minute rule)

আপনার প্রতিদিনের  করণীয় তালিকায় যদি এমন কিছু থাকে যা আপনি দুই মিনিটেরও কম সময়ে সম্পূর্ণ করতে পারেন , তাহলে অবিলম্বে এটি করুন। আপনার জীবন থেকে জিনিসগুলি অতিক্রম করা মানেই  জীবন থেকে চাপ কমাতে সাহায্য করতে পারে ।

45. অধিক পরিমান জৈব খাবার যোগ করুন: (Add more organic foods)

আপনি যা খাচ্ছেন তা জৈব হতে হবে এমন নয় তবে আরও জৈব পণ্যগুলিতে ফোকাস করা সম্ভাব্য কীটনাশক বা অন্যান্য রাসায়নিকগুলিকে নির্মূল করতে পারে যেগুলি অ-জৈব পণ্য দিয়ে স্প্রে করা হয়।

46. ভিটামিন ডি এর জন্য রোদে আরও বেশি সময় কাটান: (Spend more time in the sun for vitamin D)

প্রতিদিন 10 মিনিট সূর্যের এক্সপোজার পাওয়ার চেষ্টা করুন যখন এটি ভাল হয়। ভিটামিন ডি, যা সূর্য আপনার শরীরকে তৈরি করতে সাহায্য করতে পারে, দুর্বলতা এবং অন্যান্য অনেক রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করতে পারে। 

47. ভাজার পরিবর্তে স্বাস্থ্যকর রান্নার পদ্ধতি ব্যবহার করুন: (Use healthy cooking methods instead of frying)

 স্বাস্থ্য ভালো রাখার সহজ উপায় জানা উচিৎ। ভাজা খাবার রান্নার প্রক্রিয়ায় প্রচুর চর্বি শোষণ করে এবং ভাজা হলে শাকসবজি তাদের পুষ্টির মানের অংশ হারায়। পরিবর্তে, রোস্টিং, বেকিং, স্টিমিং ইত্যাদি সম্পর্কে চিন্তা করুন।

48. আপনার ঘুম চক্র বিবেচনা করুন: (Consider your sleep cycle)

 আপনি কতক্ষণ ঘুমান তার উপর ফোকাস করার পরিবর্তে, আপনি কতটা 90-মিনিটের ঘুমের চক্র সম্পূর্ণ করতে পারবেন তা নিয়ে ভাবুন। ঘুম থেকে ওঠার সর্বোত্তম সময় হল একটি চক্রের শেষে, তাই আপনার ঘুম থেকে ওঠার সময় দিয়ে শুরু করুন এবং রাতে আপনার চোখ বন্ধ করার সর্বোত্তম সময় খুঁজে পেতে 90-মিনিটের বৃদ্ধিতে গণনা করুন।

49. প্রকৃতিতে আরো বেশি সময় কাটান: (Spend more time in nature)

বসন্ত হল ঘরের বাইরে যাওয়ার উপযুক্ত সুযোগ। বাইরে সময় কাটানো মানসিক চাপ (stress) দূর করার,  বিষন্নতার মাত্রা কমাতে এবং প্রাণবন্ততার অনুভূতি বাড়ানোর একটি দুর্দান্ত উপায়।

50. স্বাস্থ্যকর তেল ব্যবহার করুন: (Use healthy oils)

 যেসব তেলের স্মোক পয়েন্ট বেশি (যেমন নারকেল এবং অ্যাভোকাডো তেল) আছে সেগুলি দেখুন যাতে আপনি রান্না করার সময় ভেঙ্গে না যায়। জলপাই তেল খাবার, সস এবং ড্রেসিং যোগ করার জন্য একটি দুর্দান্ত পছন্দ, তবে উচ্চ-তাপমাত্রার রান্নার জন্য এটি ব্যবহার করা এড়িয়ে চলুন। সাধারণভাবে আপনার ডায়েটে উচ্চ প্রক্রিয়াজাত উদ্ভিজ্জ তেল এড়ানোর চেষ্টা করুন।

শেষ  কথা :

ব্যায়াম কেন আপনার জন্য ভাল তা আমাদের গভীরভাবে ব্যাখ্যা করতে হবে না। স্বাস্থ্য ভালো রাখার সহজ উপায়, আপনি শীতের শেষে চর্বি হারানোর জন্য কাজ করছেন অথবা  দৌড় বা অন্য কোনো ইভেন্টের জন্য প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন না কেন, উপরে এমন  কিছু টিপস রয়েছে যা বিশেষ  বিশেষ ফিটনেস  অর্জনের লক্ষ্যে প্রয়োগ করা যেতে পারে।

বদহজম থেকে দ্রুত মুক্তি পাওয়ার ঘরোয়া উপায়

Leave a Comment