ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম অর্থসহ

ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম অর্থসহ

ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম খুঁজতে গিয়ে সদ্য জন্ম নেওয়া মেয়ে সন্তানের গার্ডিয়ানদের প্রচুর বেগ পেতে হয়। তাদের কষ্ট কিছুটা লাঘব করতে এবং নাম চয়েজের ক্ষেত্র আরো সহজ করতেই আজকের এই ত দিয়ে নাম সক্রান্ত আর্টিকেলটি। নাম রাখার ক্ষেত্রে আপনি ইসলামের নানা দিকে লক্ষ করতে পারেন, যেমন মহিলা সাহাবীদের নামের দিকে, মেয়েদের ইসলামিক আধুনিক নামের দিকে সহ ইত্যাদি সাইডে। নাম রাখতে আত্মীয়ের অনেকে অনেক রকম মতামত দিয়ে থাকে। তাই মেয়ে শিশু জন্মানোর পর থেকেই মা-বাবাদের নাম রাখা নিয়ে অতিরিক্ত একটু টেনশন করতে হয়। আর যদি সেই নামটা  মেয়েদের ইসলামিক নাম হয়, তাহলে ভেবে-চিন্তে একটু ভালো ও অর্থবহ নাম সিলেক্ট করতে হয়। কেননা একটি ইসলামিক নাম হলেই মেয়ে সন্তানের জন্য ফাইনাল করা টিক না। নামটির তাৎপর্য দিকেও নজর দিতে হবে। এখন বর্তমানে অনেকে আছে যারা  মেয়েদের আধুনিক মিষ্টি নাম রাখতে গিয়ে নানান রকম নন-ইসলামিক নাম চেয়েজ করে। আবার অনেকে ইসলামিক একটি নাম রাখতে চায় এবং শেষ অবধি একটি ইসলামিক নাম তার মেয়ের জন্য সিলেক্ট করে রেখে দেয়। কিন্তু পরোক্ষণে যখন সে নামটির অর্থের দিকে নজর দেয়, তখন দেখা যায় অধিকাংশই যে ভুলটি করে, তা হলো নামের অর্থটি নেতিবাচক। তখন অনেকে বাধ্য হয়ে মেয়ের নামটি চেঞ্জ করে আবার কেউ-বা আগেরটিই রেখে দেয়। তাই প্রথমে ভুল না করে একটি ভালো নাম চয়েজ করার ট্রাই করতে হবে। এখন এই আর্টিকেলটি যারা পড়ছেন, তাদের অবশ্যই ত দিয়ে আপনার মেয়ে অথবা আত্মীয়দের মধ্যে কারো জন্য একটি নাম চয়েজ করতে চেষ্টা করছেন। বলে রাখা ভালো যে এখানে উল্লেখিত প্রতিটা নাম ইসলামিক অর্থাৎ ত দিয়ে মেয়েদের সবগুলো নামই এখানে ইসলামিক। শুধু ইসলামিক হলেই কর্তব্য শেষ নয়! দেখতে হবে  ত দিয়ে যে মেয়েদের নামগেুলো এখানে রয়েছে, সেগুলো কী ধরনের অর্থ বহন করছে। নেতিবাচক নাকি ইতিবাচক। আমাদের কণ্যা সন্তানের জন্য অবশ্যই এখান থেকে ত দিয়ে একটি ইতিবাচক অর্থবহ ইসলামিক নাম চয়েজ করতে হবে এবং সেই নামটিই মেয়ের ডাক নাম অথবা নিক নেইম হিসেবে রাখতে হবে। হয়তো এখন বোঝে গেছেন যে কীভাবে আপনি আপনার মেয়েদের জন্য ত দিয়ে ইসলামিক নাম সিলেক্ট করে সেটি পিক করবেন। আর নাম চয়েজে কোন দিকটিকে প্রাধান্য দিতে হবে। যদি এটি বোঝে থাকেন তাহলে পোস্টটি পড়া চালিয়ে যান, এবং আশা করা যায় এখান থেকে ভালো এবং মেয়ের জন্য অর্থবহ ত দিয়ে একটি ইসলামিক নাম চয়েজ করতে সক্ষম হবেন।

বিশেষ দ্রষ্টব্য: পাঠকদের পড়ার সুবিধার্থে এবং শ্রুতিমধুর দেখতে  ৪০ টা নামের পর-পর ত দিয়ে ইসলামিক নামের একটা সংক্ষিপ্ত ব্রেক এবং এভাবে ৪টি ব্রেকের মাধ্যমে ত দিয়ে মেয়েদের প্রায় ২০০টি ইসলামিক নামের তালিকা উল্লেখ করা হলো।

ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম

ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম

এখানে উল্লেখিত সবগুলো নাম থেকে যেকোনো একটি ত দিয়ে তৈরি কৃত নাম আপনার সন্তানের জন্য রাখতে পারেন। সন্তানের জন্য নাম চয়েজ করার ক্ষেত্রে উপরোক্ত আলোচনাকৃত বিষয়টি এখানে অবশ্যই মান্য করবেন। ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম হলেই একটি নাম রেখে দিতে হবে, ব্যাপরটা কিন্তু তা নয়। অবশ্যই এখানে আপনার ভাবনা ও চিন্তা করার বিষয় রয়েছে। নিম্নোক্ত লিস্ট বা তালিকা থেকে ত দিয়ে তৈরি মেয়েদের যে নামটি আপনার পছন্দ হবে সে নামটির অর্থের দিকে অবশ্যই গুরুত্ব দিবেন। সুতরাং উক্ত কথাটি মনে রেখে ত দিয়ে মেয়েদের নামের লিস্টটি পড়ুন এবং একটি অর্থবহ নাম ফাইনাল করুন। T – ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম গুলো হলো-

  • তাখমীনা  = Takhmina = অনুমান
  • তাসমীম  = Tasmim = দৃঢ়তা
  • তাশবীহ  = Tasbih = উপমা
  • তাকমিলা  =Taklima = পরিপূর্ণ
  • তামান্না  = Tamanna = ইচ্ছা
  • তামজীদা  = Tamjidah = মহিমা কীর্তন
  • তাহযীব  = Tahjib = সভ্যতা
  • তানজীম  = Tanjim = সুবিন্যস্ত
  • তাহিরা  = Tahira = পবিত্র / সতী
  • তাহেরা  = Tahera = পবিত্র
  • তবিয়া  = Tobiya = প্রকৃতি
  • তরিকা  = Torika = রিতি নীতি
  • তাহামিনা = Tahamina = মূল্যবান
  • তাহমিনা  = Tahmina = বিরত থাকা
  • তাসকীনা  =Taskina = সান্ত্বনা
  • তাযকিয়া  = Tajkia = পবিত্রতা
  • তাসসীনা  = Tassina = উত্তম
  • তাসনিয়া  = Tasnia = প্রশংসিত
  • তুরফা  = Turfa = বিরল বস্তু
  • তহুরা  = Tohura = পবিত্রা
  • তরিকা  = Torika = রিতিনীতি
  • তানজীম  = Tanjim = সুবিন্যস্ত
  • তাহিরা  = Tahira = পবিত্র
  • তবিয়া  = Tobia = প্রকৃতি
  • তাওবা  = Tawba = অনুতাপ
  • তামজীদা  = Tamjida =  মহিমা কৃর্তন
  • তাহযিব  = Tahjib = সভ্যতা
  • তাকিয়া  = Takia = চরিত্রবান
  • তাসমীম  = Tasmim = দৃঢ়তা
  • তাশবীহ  = Tashbih = উপমা
  • তাহিয়া = Tahia = অভিবাদন
  • তাহমিনা  = Tahmina = মূল্যবান
  • তামান্না  = Tamanna = ইচ্ছা-আখাংকা
  • তানজিম  = Tanjim = সুবিনাসত
  • তাসলিমা  = Taslima = সর্ম্পণ
  • তাসনীম / তাসনিম  = Tasnim = বেহেশতের ঝর্ণা
  • তাসফিয়াহ  = Tasfiyah = বিশুদ্ধকারিনী
  • তাসফিয়া  = Tasfia = পবিত্রতা
  • তাসকীনা  = Taskina =  সান্ত্বনা
  • তাবাসসুম   = Tabassum = মুচকি হাসি
Read More  জ দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম অর্থসহ

ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম এর এটি হলো প্রথম ব্রেক। এখানে সামান্য একটু সময় রেস্ট নিয়ে পুনরায় পোস্টটি আবার পড়ুন। ত দিয়ে অনেকগুলো মেয়েদের নাম এই লিস্টে রয়েছে। পুরো পোস্টটি ধৈর্য সহকারে এবং মনোযোগ সহকারে পড়লে এখান থেকে সুন্দর এবং অর্থবহ একটি ত দিয়ে তৈরি নাম সিলেক্ট করতে পারবেন। নাম সিলেক্টের ক্ষেত্রে বহুবার যে দিকটিকে ফোকাস করা হচ্ছে তা হলো নামের অর্থের দিকে। নামটি ইসলামিক কি-না তা এবং সেই নামটি কোনো রকম শিরকী অথবা অন্য নেতিবাচক অর্থ বহন করছে কি-না তা জানার জন্য সতর্ক করা হচ্ছে। আর এই গুরুদায়িত্ব হলো মা-বাবা এবং মেয়ে সন্তানের গার্ডিয়ানের উপর। সুতরাং নাম চয়েজের ক্ষেত্রে যতটা সাবধানতা অবলম্বন করা যায়, ততই সেভ থাকা যায়। আর এই দিকটি লক্ষ্য রেখেই নাম চয়েজ করতে হবে।

  • তাসলিমা   = Taslima = সম্পূর্ণ
  • তাসমিয়া  = Tasmia = নামকরণ
  • তুবা  = Tuba =   খাঁটি
  • তাসনিম  = Tasnim = ঝর্ণা
  • তাইয়বা  = Taiba = আনন্দদায়ক, ভাল
  • তাবাসসুম  = Tabassum = হাসি, সুখ, একটি ফুল
  • তুব্বা  = Tubba = ধন্যতা, সদাচরণ, পরমানন্দ, স্বর্গের একটি গাছ
  • তানজিলা  = Tanjila = বেটিড
  • তামান্না = Tamanna = আকাঙ্ক্ষা, শুভেচ্ছা
  • তেহরিম  = Tehrim = শ্রদ্ধা, পবিত্রতা
  • তাহিরা  = Tahira = খাঁটি, পবিত্র সম্প্রীতি, ঘনিষ্ঠতা, পারস্পরিক স্নেহ
  • তাইকুল  = Taikul = বুদ্ধিমান চিন্তাভাবনা
  • তায়েস = Tayes = সূচনা, ভিত্তি
  • তাবা  = Taba = চাস্ট
  • তাবাহহুজ  = Tabahuj = খুশী হোন, প্রফুল্ল
  • তাবাহাহুর  = Tabahahur = নদীর মতোই গভীর জ্ঞানবান, গভীর
  • তবলাহ  = Tblah = তিনি হাদীসের বর্ণনাকারী ছিলেন
  • তাবান  = Taban = সুদীর্ঘ, চকচকে
  • তাবানি  = Tabani = হালকা,
  • তাবিদা  = Tabida = কমপ্লেক্স, জিগজ্যাগ, কার্লিং
  • তাবেইন  = Tabein = অনুসারীরা
  • তাসনীম  = Tasnim = বেহেশতের ঝর্ণা
  • তাখমীমা  = Takhmija = অনুমান
  • তাবিয়া  = Tabia = অনুগত
  • তোহফা   = Tohfa = উপহর
  • তাসনিয়া  = Tasniya =  প্রশংসা
  • তাসনিম  = Tasnim = বেহশতী ঝর্ণা
  • তূবা  = Tuba = সুসংবাদ
  • তাহিয়া  = Tahia = অভিবাদন।
  • তাবিথা  = Tabitha = একটি গজল
  • তাবনা  = Tabna = বুদ্ধি এবং বোধগম্য
  • তাবশ  = Tabos = উষ্ণ, হালকা
  • তাদেব  = Tadeb = সাহিত্য শেখায়
  • তাডিয়া  = Tadia = প্রদান করতে
  • তাফিয়া  = Tafia = পালক
  • তাফিদা  = Tafida = প্যারাডাইস মিশর নাম
  • তাগিয়া  = Tagia = উচ্চ পাইলস
  • তাগরিদ  = Tagrid = পাখি হিসাবে গাওয়া
  • তাহানী  = Tahani = অভিনন্দন
  • তাহিরা  = Tahira = সজ্জা থেকে

ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম এর সেকেন্ড ব্রেক এটি। এখন পর্যন্ত প্রায় অর্ধশতক ত দিয়ে তৈরি নাম পড়েছেন। যদি আপনি ত দিয়ে আপনার মেয়ে কিংবা আত্মীয় কারো নাম রাখতে চান, তাহলে এখান থেকে যেকোনো একটি নাম কোনো রকম সংকোচ ছাড়াই সিলেক্ট করতে পারেন। এখানে উল্লেখিত প্রতিটি নাম ইসলামিক এবং একই সাথে সেগুলো ইতিবাচক অর্থ বহন করছে। সুতরাং এখান থেকে ত দিয়ে নাম চেয়েজে কোনো রকম দ্ধিধা করা প্রয়োজন নেই। যেকোনো একটি নাম পিক করা যেতে পারে। তবে এর জন্য মনোযোগ সহকারে পুরো লিস্টটি পড়তে হবে। তাহলেই ত দিয়ে ইসলামিক একটি নাম আপনার মেয়ের জন্য পিক করতে পারবেন।

  • তাহেরিহ   = Taherih = পাকি ক্লিয়ারিং
  • তাহেরোরতহিরা = taherothira = খাঁটি, পবিত্র
  • তাহিয়া  = Tahiya = শুভেচ্ছা, সালাম, উল্লাস
  • তাহিয়াহ  = Tahiyah = শুভেচ্ছা, উল্লাস
  • তামাজুর  = Tamajur = উজ্জ্বল, শুভ্রতা।
  • তামিমাহ  = Tamimah = একজন কবিগুরুর নাম
  • তাসফিয়া  =Tafia = পবিত্রতা
  • তানিয়া  = Tania = প্রিন্সেস, পরী, অ্যাঙ্গেল, রয়্যালটি
  • তানভীর  = Tanvir = আলোর রশ্মি
  • তাবীর  = Tavir = ভাল কাজের ফলাফল
  • তাহরীম  = Tahrim = সম্মান, পবিত্রতা, নিষেধ, প্রতিরোধ, পবিত্র
  • তাবেরী  = Taberi = ভাল কাজের ফলাফল
  • তাবিয়া  = Tabia = আনুগত্যকারী
  • তুবা  = Tuba = সুসংবাদ
  • তাওবা = Tawba = অনুতাপ
  • তাসমিয়া  = Tasmia =  নামকরণ
  • তাকি  = Takhi = খোদাভীরু
  • তানভীর  = Tanvir = আলোর আলোকরশ্মি
  • তানজিলা  = Tanjila = বেটিয়েড
  • তাওসা  = Tawsha = পেহেন
  • তাকাদুস  = Takaddus = সত্য।
  • তাকদিস  = Takdis = পবিত্রতা
  • তাকিয়া  = Takia = খোদাভক্তিশীল, ধর্মপ্রাণ, ধার্মিক
  • তাকিয়াহ  = Takiah = ধার্মিক, ধার্মিক।
  • তাবিয়ান  = Tabiyan = প্রকাশ করুন
  • তাবিবা  = Tabia =  প্রতিভাবান
  • তারাজা  = Taraja = এসসিআরএল – নামের বাংলা অর্থ – ওয়ার্ক
  • তারাজি  = Taraji = ডেক
  • তারবা  = Taraba = সুখ
  • তারেদা  = Tareda = সন্ধান করুন
  • তারিফা  = Tarifa = বিরল, অদ্ভুত, কৌতূহলী
  • তারিন  = Tarin = আরও
  • তারারি  = Tarabi = স্টাইলিশ
  • তরফা  = Torfa = মূল্যবান
  • তারিফা  = Tarifa = বিরল
  • তরনীম  = Tornim = ছন্দ, কণ্ঠস্বর
  • তারুহ  = Taruh = শুভ
  • তারজ  = Taroj = সংগীত রীতি
  • তাসাওয়ার  = Tasaowar = যত্ন নিন
  • তাসির  = Tasir = ফলাফল, প্রভাব
  • তাসীন  = Tasin = সদা উচ্চাভিলাষী
Read More  তানিয়া নামের অর্থ কি ? Tania নামের বাংলা, আরবি ও ইংরেজী অর্থ কি

ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নামের প্রায় অর্ধেক নাম পড়া শেষ। সত্যিকার অর্থে যদি আপনি মেয়েদের জন্য ত দিয়ে একটি ইসলামিক নাম খুঁজে থাকেন, তাহলে ইতিমধ্যে এখান থেকে যেকোনো একটি নাম চয়েজ করতে পারা কথা। তবে যদি এখনো কোনো নাম চয়েজ করতে না পেরে থাকেন, তাহলে দয়া করে পুনরায় পোস্টটি পড়ুন। অথবা আগে সম্পূর্ণ পোস্টেটি পড়ুন। পুরো পোস্টটি পড়লে ত দিয়ে ইসলামিক নামের প্রতি একটি ভালো ধারণা পেয়ে যাবেন, পাশাপাশি নাম সিলেক্টের ক্ষেত্রে কোন দিকটিকে প্রাধান্য দিতে হবে সেটিও বোঝতে সক্ষম হবেন। সুতরাং ত দিয়ে আপনার মেয়ের জন্য একটি ইসলামিক নাম চয়েজ করার পূর্বে পুরো পোস্টটি একবার পড়ুন।

  • তাশফা = Tashfa = সহানুভূতিশীল
  • তাসনিয়া‌  ‌=‌ ‌Tasniya = প্রশংসিত।‌
  • তাবিনা  = Tabina = মুহাম্মদের অনুগামী
  • তাবিন্দ  = Tabindo = উজ্জ্বল
  • তাইয়্যিবা  = Taiyba = পবিত্র
  • তহুরা  = Thora = পবিত্রা
  • তুরফা  = Turfa = বিরল বস্তু
  • তেহজিব‌ ‌= Tehzeeb = একটি‌ ‌মার্জিত‌ ‌যুবতী‌ ‌
  • তোহফা‌  ‌=‌ ‌Tohfa = উপহার।‌
  • তানমীয়া  ‌= Tanmia = ক্রোধ‌ ‌প্রকাশ‌ ‌করা।‌ ‌
  • তানিয়া‌  ‌=‌ ‌Tania = রাজকণ্যা।‌ ‌
  • তাবা‌ ‌= Taba = আরেকটি‌ ‌বিরল‌ ‌নাম‌ ‌যা‌ ‌একটি‌ ‌মেয়ের‌ ‌মিষ্টত্বের‌ ‌নির্দেশক‌ ‌
  • তাবিয়া‌ = Tabiya = অনুগত।‌
  • তালিবা‌ ‌= = যে‌ ‌সর্বত্র‌ ‌জ্ঞান‌ ‌সন্ধান‌ ‌করে‌ ‌
  • তালিহা‌ ‌= = সব‌ ‌জ্ঞানের‌ ‌খোঁজ‌ ‌করে‌ ‌যে‌ ‌
  • তাশবীহ‌  ‌=‌ ‌Tashbih = উপমা।‌
  • তারাব  = Tarab = সুখ
  • তারানা  = Taranna = লিরিক, গান
  • তারনেহ  = Tarneh = গান
  • তারান্নুম  = tarannum = রচনা
  • তারাওয়াত  = Taraoyat = সফ্টনেস, শীতলতা
  • তাবিয়া  = Tabia = অনুগত অনুগতা
  • তাবাসসুম  = Tabassum = মুসকি হাসি
  • তাসনিয়া  = Tasnia = প্রশংসিত / প্রশংসা
  • তাহসীন  = Tahsin = সুন্দর
  • তাহসীনা  = Tahsina = উত্তম
  • তাহিয়্যাহ  = Taiyah = শুভেচ্ছা
  • তোহফা  = Tohfa = উপহার
  • তাফাননুম  = Tafannum = আনন্দ
  • তামিমিয়া  = Tamimia = নিখুঁততা
  • তমিজ  = Tamij = পরিচয়
  • তনিমা =Tonima =মনোরম কৃশতা
  • তাসফিয়া‌  ‌=‌ ‌Tasfiya = পবিত্রতা।‌ ‌
  • তাসমিয়া‌  ‌=‌ ‌Tasmiya = নামকরণ।‌ ‌
  • তাসমীম‌  ‌=‌ ‌Tasmim = দৃঢ়তা।‌ ‌
  • তুরফা‌  ‌=‌ ‌Turfa = বিরল‌ ‌বস্তু।‌ ‌
  • তূবা‌  ‌=‌ ‌Tuba = সুসংবাদ‌ ‌
  • তাসকীনা‌  ‌=‌ ‌Taskina = সান্ত্বনা।‌ ‌
  • তমেকা  = Tomeka = যমজ
  • তামিন  = Tamin = সুরক্ষা, সমর্থন
  • তামাকেন  = Tamaken = শক্তি, স্থিতি

এটি হলো T- ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নামের লাস্ট ব্রেক। প্রায় শেষ মেয়ের ইসলামিক নামের পর্যায়ে চলে আসলাম। ইতিমধ্যে আমরা অনেকগুলো ইসলামিক নাম সম্পর্কে অবগত হলাম। এখান থেকেও আমরা আমাদের মেয়েদের জন্য এখান থেকে ত দিয়ে মেয়েদের নাম পিক করতে পারি। আপনি যদি পুরো পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ে থাকেন এবং ধৈর্যসহকারে পড়েন,তাহলে এখান থেকে যেকোনো একটি মেয়ের নাম সিলেক্ট করতে পারবেন। আর যদি এখনোও কোনো একটি নাম চয়েজ করতে না পেরে থাকেন, তাহলে নিম্নের নামগুলো পড়ুন। আশা করি এখান থেকেই একটি ভালো এবং অর্থবহ নাম চয়েজ করতে পারবেন।

  • তমরা  = Tomra = খেজুরের তালু , পাম গাছ
  • তানজ  = Tanoj = ভাগ করে নেওয়া
  • তানিয়া  = Tania = প্রিন্সেস, পরী, অ্যাঙ্গেল, রয়্যালটি
  • তানিজিয়া  = Tanijia = একটি ফুলের নাম
  • তানজিয়া  = Tanjia = রেসকিউ, মোক্ষ
  • তন্নাজ  = Tonnaj = কোকটিটিশ ভোরের
  • তনসু  = Tonshu = জল
  • তনয়া  = Tonoya =কন্যা / মেয়ে
  • তাসনিম‌  ‌=‌ ‌ Tasnim = ঝর্ণা।‌ ‌
  • তামান্না‌ =‌ ‌Tamanna = ইচ্ছা।‌ ‌
  • তাযকিয়া‌  ‌=‌ ‌Tazkiya = পবিত্রতা।‌
  • তমিস্রা = Tomisra =অন্ধকার / আঁধার
  • তরুণিমা =Torunima = তারুণ্য / যৌবন
  • তাপ্তি =Tapti = নদীর নাম
  • তামসী =Tamsi = অন্ধকারময়
  • তনিকা =Tanika = রজ্জু
  • তাসলিমা‌ ‌=‌ ‌Taslima = সর্ম্পণ।‌ ‌
  • তাহমিনা‌  ‌=‌ ‌Tahmina = বিরত‌ ‌থাকা।‌ ‌
  • তাহযীব‌  ‌=‌ ‌Tahzib = সভ্যতা।‌ ‌ 
  • তাহসীনা‌  ‌=‌ ‌Tahsina = উত্তম।‌ ‌
  • তাহামিনা‌  ‌=‌ ‌Tahmina = মূল্যবান।‌
  • তাকিয়া  = Takia = শুদ্ধ চরিত্র / পবিত্রতা
  • তনুশ্রী =Tonishri = সুন্দরী / রূপবতী
  • তমালিকা =Tomalika =তমালপ্রচুর দেশ / তমলুক
  • তাহিয়া‌ ‌=‌ ‌Tahiya = সম্মানকারী।‌
  • তারিকা = Tarika = উদ্ধারকারিণী
  • তাহিয়্যাহ‌  ‌=‌ ‌Tahiyah = শুভেচ্ছা।‌ ‌
  • তাহিরা‌  ‌=‌ ‌Tahira = পবিত্র।‌ ‌
Read More  সফলতার দোয়া - Dua for success সম্পর্কে জানুন

এতোক্ষণ আমরা ত দিয়ে মেয়েদেরে ইসলামিক নাম এর সম্পূর্ণ তালিকাটি পড়লাম। ত দিয়ে মেয়েদের নাম সম্পর্কে অবশ্যই একটি ভালো আইডিয়া আমাদের জেনারেট হয়েছে। এখানে উল্লেখিত ত দিয়ে সকল নামগুলোই ইসলামিক নাম মেয়েদের জন্য। এখান থেকে পারপেক্ট একটি ইসলামিক নাম চয়েজ করতে পারেন। আশা করি ত দিয়ে যেকোনো একটি নাম মেয়ের জন্য চয়েজ করতে পেরেছেন।যদি এখনো না পেরে থাকেন, তাহলে দয়া করে পুনরায় পোস্টটি আবার পড়ুন। আশা করি এখান থেকে ভালো ইসলামিক এবং অর্থবহ ত দিয়ে মেয়েদের একটি নাম পিক করতে সক্ষম হবেন।

ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নামের অর্থ

ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নামের অর্থ

সন্তান জন্ম নেওয়ার পর মা-বাবাদের জন্য সার্বিকভাবে প্রথম দায়িত্ব হলো ভালো একটি ইসলামিক নাম চয়েজ করা। এখন যদি সেটা হয় T – ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম, তাহলে সেটাই হোক। এতে কোনো রকম সমস্যা নেই। সমস্যা তৈরি শুধু তখনই হয়, যখন মা-বাবা মুসলিম হওয়া সত্ত্বেও তাদের সন্তানের নামের ক্ষেত্রে একটি নন-মুসলিম নাম সিলেক্ট করে থাকে এবং তা সারা জীবনের জন্য রাখা হয়। মেয়েদের বা ছেলেদের যেকোনো একটি নাম চয়েজ করতে চাইলে আপনি নামটি ইসলামিক কি-না তা একবার দেখবেন। আবার একই ভাবে দেখবেন সেই নামটি ইসলামিক হওয়া সত্ত্বেও কি অর্থ বহন করছে। যেকোনো নাম সাধারণত দুটি অর্থ বহন করে। এক হলো নেতিবাচক এবং অন্যটি হলো ইতিবাচক। এখানে উল্লেখিত ত দিয়ে মেয়েদের প্রতিটি নাম ইসলামিক আবার একই সাথে সেগুলো ইতিবাচক অর্থবহন করছে। সুতরাং নাম চয়েজের ক্ষেত্রে কোনো কার্পন্নতা না রেখে এখান থেকে যেকোনো একটি নাম চয়েজ করতে পারেন আপনার মেয়ের জন্য। তারপর অতিরিক্ত সতর্ক হিসেবে আপনার সিলেক্টকৃত ত দিয়ে মেয়ের নামটি আবার চেক দিন। আশা করি বিষয়টি বোঝতে পেরেছেন যে কোনো আমাদের ত দিয়ে তথা সকল বর্ণ দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নামের  অর্থের দিকে নজর দিতে হবে।

T – ত দিয়ে মেয়ে শিশুদের ইসলামিক নাম রাখা

ত দিয়ে মেয়ে শিশুদের ইসলামিক নাম রাখা

ত দিয়ে মেয়ে শিশুদের জন্য ইসলামিক নাম বা ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম সংযুক্ত টাইটেল দেখেই বোঝার কথা যে, আজকের পোস্টটি মেয়েদের ইসলামিক নামের একটি পোস্ট। আজকের এই পোস্টে থেকে আপনি যেকোনো একটি নাম সিলেক্ট করতে পারেন। সন্তানের যখন একটি নাম রাখা হয়, বর্তমানে মা বাবারা সেই নামের প্রতি কম গুরুত্ব দিয়ে থাকে। যেমন অনেকে চিন্তা করে যেকোনো একটি নাম হলেই চলবে। আবার অনেকে তা ভাবে নামটি অবশ্যই ইসলামিক হতে হবে। এরকম চিন্তা ভাবনা থেকেই মেয়ে বা ছেলে সন্তানের জন্য যেকোনো একটি নাম রেখে দেয়। তবে বিষয়টা মোটেও এরকম না। এখানে আপনাকে বোঝতে হবে যে, যেহেতু আপনি একজন মুসলিম এবং আপনার সন্তানটি মুসলিম ঘরের, তাই নামিটও মুসলিম নাম রাখতে ‍হবে। কোনো অবস্থাতেই যেন নামটি নন-মুসলিম নাম না হয়। তারই প্রেক্ষিতে যারা তাদের মেয়েদের জন্য ত দিয়ে ইসলামিক নাম রাখতে চান, এবং ভালো একটি অর্থবহ নাম খুঁজে পান না, তাদের জন্য আজকের ত দিয়ে মেয়েদের মুসলিম নামের পোস্টটি। এই লিস্ট থেকে আপনি যেকোনো একটি নাম চয়েজ করে আপনার মেয়ের জন্য রাখতে পারেন। কেননা এখানে উল্লেখিত প্রতিটি নামই বাঁচাইকৃত পাশাপাশি নামগুলো ইসলামিক। একই সাথে নামগুলো নেতিবাচক অর্থবহ সম্পন্ন। তাই এখান থেকে যেকোনো একটি ত দিয়ে তৈরি হওয়া নাম চয়েজ করতে পারেন এবং একটি ইসলামিক নাম হিসেবে আপনার মেয়ের জন্য রাখতে পারেন।

আমাদের সাইটে প্রতিনিয়ত এরকম বিভিন্ন বর্ণ দিয়ে তৈরি নাম প্রকাশ হচ্ছে। যেমন পূর্বে পোস্টগুলো হলো ই দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম, র দিয়ে মেয়েদের নাম, ম দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম, শ দিয়ে মেয়েদের নাম, আ দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম, স দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম সহ ইত্যাদি। নবীর স্ত্রীদের নাম জানুন।

ত দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম সম্পর্কে জানতে

Leave a Comment