ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয়

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয়

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার বিষয়টি নিয়ে অনেক সাইটে আলোচনা হলেও ডিপলী খুব কম আলোচনা হয়েছে। তারই প্রেক্ষিতে আজকে আমরা বেশ কয়েকটি অনলাইনে আয় করার পদ্ধতি বা উপায় নিয়ে আলোচনা করবো, যেগুলোতে একজন ছাত্র খুব সহজেই সফল হতে পারে অর্থাৎ উল্লেখিত সে উপায়গুলো প্র্রয়োগের মাধ্যমে সে অনলাইনে আয় করতে সক্ষম হবে।

আমরা যারা যারা ছাত্র রয়েছি, তাদের অধিকাংশ রয়েছি বেকারত্বের অভিশাপের ছায়ায়। এর থেকে আমাদের বের হতে হবে। কিন্তু কিভাবে বের হবো? কোনো কার্যকারী উপায় বা পদ্ধতি কি রয়েছে? অবশ্যেই রয়েছে! মূল বিষয় বোঝার আগে আমাদেরকে অবশ্যই প্রথমে বোঝে নিতে হবে যে, বর্তমান যুগ কিসের সাথে তাল মিলিয়ে চলছে, কিভাবে চলছে এবং ভবিষ্যৎ জেনারেশন বা যুগ কিভাবে চলবে? এসব প্রশ্নের উত্তর যদি আমরা বের করতে সক্ষম হই, তাহলে আশা করি খুব সহজেই বোঝতে পারবো যে, আমাদের বেকারত্ব কিভাবে দূর করবো এবং এর থেকে রেহাই পেতে আমাদের কে কি কি স্টেপ নিতে হবে। তাহলে চলুন, জানা যাক বিস্তারিত।

যেহেতু বর্তমানে যুগ হলো তথ্য প্রযুক্তির যুগ এবং সব কিছুই ইন্টারনেট নির্ভর। আর যদি আমরা সূক্ষ্মভাবে একটু লক্ষ্য করি যে, আগামী পৃথিবী কোন দিকে ধাবিত হচ্ছে, তাহলেই বোঝার কথা। সোজা কথায়, আমাদেরকে এমন একটি ক্যারিয়ার এবং একই সাথে টাকা আয়ের পথ তৈরি করতে হবে, যা হবে সম্পূর্ণ অনলাইন নির্ভর। এখন এটা কখন শুরু করবো? এখানে বোঝাতে চাচ্ছি যে, অনলাইন নির্ভর ক্যারিয়ার গঠন করার উপযুক্ত সময় কোনটি? এটা কি আপনার বয়স যখন ৩০+ হবে তখন? অবশ্যই না। যদিও শেখার কোনো বয়স নেই কিন্তু টাকা আয়ের বয়স উপযুক্ত বয়স রয়েছে এবং এটা যে যত তাড়াতাড়ি করতে সক্ষম হয়,তাঁর জন্য ততই উপকার। যদিও ক্ষেত্র ভেদে এর ভিন্নতা হতে পারে। তবে যাইহোক, ছাত্রদের জন্য উপযুক্ত সময় হলো তাদের শিক্ষাজীবন হতেই ক্যারিয়ার গঠন ‍শুরু করা। তাহলে যখন তার বয়স হবে ৩০, তখন তাঁর ভিত্তি খুবই শক্তিশালী হবে। এখন প্রশ্ন আসতে পারে, কিভাবে ক্যারিয়ার গঠনের পাশাপাশি অনলাইনে টাকা আয় করতে পারবে ছাত্ররা? হ্যাঁ, ধীরে ধীরে আমরা আলোচনা করবো সে বিষয়ে। যদিও ইতিমধ্যে অনেকগুলো আলোচনা রয়েছে অনলাইনে টাকা আয় করার সহজ সহজ অনেকগুলো উপায় নিয়ে। চাইলে ঐগুলোও পড়ে আসতে পারেন। এতে করে আজকের আর্টিকেলটি বোঝতে আরো সুবিধা হবে। যাইহোক, আজকের আর্টিকেলে আমরা শুধু মাত্র ছাত্ররা কিভাবে অনলাইনে টাকা আয় করতে পারে, সে বিষয়েই আলোচনা করা হবে, অন্য সকল বিষয়গুলো নিয়ে পূর্বের অনেকগুলো আর্টিকেলে আলোচনা হয়েছে। তাহলে চলুন মূল আলোচনায় যাওয়া যাক।

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার উপায় – Ways to make money online for students

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার উপায়

যেহেতু আজকের আর্টিকেলটি হলো শুধু মাত্র ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার উপায় Way of online income নিয়ে, সেহেতু এখানে যে কয়েকটি উপায় নিয়ে আলোচনা করা হবে, আশা করি মনোযোগ সহকারে কেউ পড়ে তা যদি প্র্যাক্টিস করার পাশাপাশি ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটে সঠিক উপায়ে ফ্রিল্যান্সিং করে, তাহলে আশানুরূপ ফলাফল পাবে। তো শুরুতে চলুন কোন কোন উপায়ে আপনি অনলাইনে টাকা আয় করতে পারেন সে সম্পর্কে সংক্ষিপ্তে জেনে নেওয়া যাক। ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার উপায়গুলো হলো

  • ওয়েব সাইটের মাধ্যমে ব্লগিং করে
  • কন্টেন্ট রাইটিং করে
  • গ্রাফিক্স ডিজাইন করে
  • এসইও করে
  • সিপিএ মার্কেটিং করে

এখানে মূলত এই পাঁচটি উপায় নিয়েই আলোচনা করা হবে। এরপর আমরা জানবো, উক্ত কাজগুলো শিখে কোথায় থেকে কাজ পাবো এবং কিভাবে সে কাজগুলো করে ক্লাইন্টকে ঠিকভাবে বোঝিয়ে দিতে হবে। অর্থাৎ এক কথায় ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলো সম্পর্কে জানার চেষ্টা করবো। তাহলে চলুন, আলোচনা বেশি দীর্ঘায়িত না করে ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার উপায়গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

ওয়েব সাইটের মাধ্যমে ব্লগিং করে – Blogging by Website

ছাত্রদের অনলাইনে আয় করার সবচেয়ে সহজ ও উপযোগী একটি উপায় হলো ব্লগিং Blogging এর মাধ্যমে অনলাইন থেকে আয় করা। কিন্তু আমাদের মাঝে এমন অনেক আছে যারা ব্লগিং কি তা জানে না। আর এটাই স্বাভাবিক। কেননা আমরা আমাদের প্রাইমারি লেভেল থেকে এখন অবধি পারিবারিক কিংবা প্রাতিষ্ঠানিক কোনো জ্ঞান পাই নি এর সম্পর্কে।

সবার প্রথমে চলুন জেনে নেওয়া যাক ব্লগিং কি? ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ব্লগিং হলো আপনি যদি এমন কোনো নিশ বা বিষয়ের উপর অভিজ্ঞ হয়ে থাকেন, তাহলে একটি একক ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ইন্টারনেটে তা সুন্দর করে তুলে ধরা। যেমন আপনি যদি একটি বিষয় ( ট্রাভেল বা ভ্রমণ ) এর উপর অভিজ্ঞ হয়ে থাকেন, তাহলে আপনি এটাকে ভিত্তি ধরেই কাজ শুরু করতে পারেন। এর জন্য প্রথমে আপনাকে আপনার পছন্দ অনুযায়ী যেকোনো একটি ভালো নিশে সিলেক্ট করতে হবে। এবার আপনি একটি ডোমেইন এবং হোস্টিং রেজিস্ট্রেশন Domain and Hosting registration করে ব্লগিং করা শুরু করে দিতে পারেন। অথবা আপনি ফ্রীতে গুগলে ওয়েবসাইট তৈরি করে ব্লগিং free blogging by google blogspot করতে পারেন। যখন যথেষ্ট পরিমাণ ট্রাফিক আপনার সাইটে আসবে, তখন আপনি গুগলে অ্যাডসেন্সের জন্য আবেদন করতে পারেন। আবেদন এরপর ট্রাফিক আসলে অ্যাডসেন্স থেকে অনলাইনে আয় করতে পারবেন। মজার ব্যাপার হলো আপনি যদি একজন ছাত্র হোন, তাহলে এটি আপনার জন্য আরো সুবধার। কেননা আপনি আপনার পড়ালেখাকে ভিত্তি ধরেও ব্লগিং করে টাকা আয় করতে পারবেন। পাশাপাশি পড়ালেখাও হলো। এভাবেই মূলত একজন ছাত্র বা ছাত্রদের অনলাইনে আয় করার উপায় বের করতে পারে। আর ব্লগিং এর মাধ্যমে অনলাইনে আয় হলো সবচেয়ে ইজি ব সহজ।

কন্টেন্ট রাইটিং করে – Content Writing

কন্টেন্ট রাইটিং Content Writing করেও একজন ছাত্র খুব সহজেই অনলাইন থেকে আয় করতে পারে। এখন কিভাবে কন্টেন্ট রাইটিং করে? এটি একজন ছাত্র দুইভাবে করতে পারে। একটি হলো সে যদি ইংরেজি ভাষায় পারদর্শী হয়ে থাকে, তাহলে সে ইংরেজী কন্টেন্ট লিখবে আর যদি সে বাংলা ভাষায় পারদর্শী হয়, তাহলে সে বাংলা ভাষায় কন্টেন্ট রাইটিং করবে। তবে এখানে অবশ্যই অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে। এটা যখন আপনি প্র্যাক্টিস করবেন, তখন ধীরে ধীরে আপনার মধ্যে স্থায়ী হয়ে যাবে। যখন আপনি কন্টেন্ট রাইটিং এ পারদর্শী হয়ে যাবেন, তখন আপনি ইন্টানেটে থাকা বিভিন্ন কোম্পানিগুলো থেকে বা মার্কেটপ্লেসগুলো থেকে কাজ নিয়ে কাজ করে সাবমিট করে টাকা আয় করতে পারেন। মূলত এভাবেও একজন ছাত্র অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে পারে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন করে – Graphic Design

বর্তমান সময়ে এবং আগামী দিনগুলোতে গ্রাফিক্স ডিজাইনের Graphic Design যে পরিমাণ ভেল্যু থাকবে, তা বলে বোঝানো সম্ভব নয়। সুতরাং বোঝাই যাচ্ছে যে, গ্রাফিক্স ডিজাইনের প্রতি তৎপর হওয়াটা কেমন জরুরি। একজন ছাত্র তাঁর ছাত্রাবস্থায় সে গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ শিখতে পারে। এর জন্য তাঁর প্রয়োজন প্রবল ইচ্ছা ও আগ্রহ। বর্তমানে ইন্টারনেটে প্রচুর কোর্স রয়েছে গ্রাফিক্স ডিজাইনের। এর মধ্যে কিছু কোর্স রয়েছে প্রিমিয়াম আবার কিছু রয়েছে ফ্রী। তবে একজন ছাত্র চাইলেই সে ইউটিউব থেকে ফ্রীতে গ্রাফিক্স ডিজাইনের কোর্সগুলো দেখে শিখতে পারে। এবং ভিডিও দেখার পাশাপাশি নিয়মিত প্র্যাক্টিস করে স তাঁর দক্ষতাকে আরো সমৃদ্ধশীল করতে পারে। আর এভাবেই একজন ছাত্র গ্রাফিক্স ডিজাইনে তাঁর দক্ষতাকে বাড়াতে পারে। এরপর সে ফাইবারের ন্যায় অন্যসব ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটগুলোতে কাজ করে টাকা আয় করতে পারে। মূলত একজন ছাত্রের জন্য টাকা আয়ের অন্যতম একটি উৎস হতে পারে গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ।

এসইও করে – SEO Marketing

ইন্টারনেটে বা অনলাইনে দিন দিন যেমন ওয়েবসাইটের সংখ্যা ও গুরুত্ব বাড়ছে, ঠিক একইভাবে এসইও SEO এর গুরুত্বও সমানভাবে বাড়ছে। একজন ব্যক্তি যদি এসইও এর কাজ শিখে তাহলে সে পৃথিবীর যেকোনো প্রান্ত থেকে কাজ পেতে পারে। কেননা পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই রয়েছে এসইও কাজের গুরুত্ব। এটিও আপনি ফ্রীতে ইউটিউব থেকে শিখতে পারেন। এছাড়াও আমাদের সাইটে এই নিয়ে বিস্তারিত একটি পোস্ট সহ নানা দিক নিয়ে এর সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে। সুতরাং আপনি যদি সত্যিই এসইও শিখতে আগ্রহী হয়ে থাকেন, তাহলে দয়া করে আমাদের এসইও সক্রান্ত সমস্ত পোস্ট তথা আর্টিকেলগুলো একবার পড়ে আসুন। আশা করি উপকৃত হবেন। এছাড়াও আপনি ইউটিউব বা আমাদের সাইটে এসইও টিউটরিয়ালগুলো পড়তে পারেন।

সিপিএ মার্কেটিং করে – CPA Marketing

আজকের পোস্টে সবচেয়ে কম গুরুত্ব পাওয়া স্ট্র্যাটেজি হলো সিপিএ মার্কেটিং CPA Marketing। কিন্তু বর্তমানে এমন অনেক ছাত্র আছে, যারা সিপিএ মার্কেটিং করে হাজার হাজার ডলার ইনকাম করছে ইন্টারনেট থেকে। তাই যদি আপনি একজন ছাত্র হোন এবং বেকাত্ব দূর করতে চান, তাহলে পড়ালেখার পাশাপাশি আপনি সিপিএ মার্কেটিং শিখতে পারেন। এর বর্তমান মার্কেট ভেল্যু অনেক। যেকোনো একটি ইউটিউব চ্যানেলের ফ্রী ভিডিও দেখেও আপনি শিখতে পারেন সিপিএ মার্কেটিং সম্পূর্ণ ফ্রীতে। সুতরাং আজই কাজে লেগে পড়ুন।

মূলত আজকের পর্বের এই ৫টি উপায় ছিল একজন ছাত্রের জন্য উপযুক্ত উপায়, যে পদ্ধতিগুলোর যেকোনো একটি যদি কোনো ছাত্র মেনে কাজ শিখে তা প্র্যাক্টিস করে মার্কেটপ্লেসগুলোতে কাজ করে, তাহলে খুব সহজেই সে ছাত্রবস্থায় অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে পারবে। সুতরাং, এই পোস্টটি যদি এমন কেউ পড়ে থাকে, যে ছাত্র অবস্থায় অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে চায় এবং বেকারত্ব দূর করতে চায়, তাহলে সে উপরোক্ত উপায়গুলো অনুসরণ করার মাধ্যমে অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে পারে। এতোক্ষণ তো কি কি কাজ শিখে নিজের স্কিল বাড়াবেন, তা নিয়ে আলোচনা করলাম, এখন চলুন জানা যাক ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলো সম্পর্কে। কেননা, আপনি কাজ শিখলেন, কিন্তু এই কাজটি কোথায় করবেন অথবা কাদেরকে সার্ভ করে টাকা আয় করবেন তা না জানলে পুরো বিষয়টিই ঘোলাটে হয়ে যায়। তাই চলুন জেনে নেওয়া যাক আউটসোর্সিং এর জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেসগুলো সম্পর্কে।

ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস – Top Freelancing Marketplace

ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস

আজকের এই পৃথিবীতে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস increasing freelancing marketplace day by day এর সংখ্যা দিন দিন ক্রমশ বাড়ছে। আর এই বাড়ার অনেকগুলো কারণ রয়েছে। কেননা দিন দিন লোকজন-ছাত্র-ছাত্রীরা অনলাইনে কাজ শিখে তাঁরা মার্কেটপ্লেসগুলোতে কাজের জন্য ডু মারছে। যেহেতু লোকবল বেশি, তাই মার্কেটপ্রেসও বাড়ছে। ঠিক একইভাবে কতগুলো জনপ্রিয় আউটসোর্সিং মার্কেটপ্লেস রয়েছে, যেগুলো বর্তমানে খুব স্টাবলিশ। আর আজকের আর্টিকেলে আমরা সেগুলোর নাম উল্লেখ করবো। বর্তমানে জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলো হলো

  • ফাইভার – Fiverr
  • আপওয়ার্ক – Upwork
  • টপটাল – Toptal
  • সিমপ্লি হায়ার্ড – Simply Hired
  • পিপল পার আওয়ার – People Per Hour
  • অ্যাকুয়েন্ট – Aquent
  • ক্রাউডেড – Crowded
  • ৯৯ডিজাইনস – 99designs
  • রাইটার এক্সেস – WriterAccess
  • ফ্রিল্যান্সার – Freelancer

উপরোক্ত ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলো বর্তমানে সবচেয়ে সেরা ও জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেস। যেখানে লাখ লাখ মানুষ বা ফ্রিল্যান্সিং কাজ করে টাকা আয় করছে। সুতরাং একজন ছাত্র হিসেবে আপনিও সেখানে কাজ করে অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে পারেন। আর এটি হলো উত্তম পন্থা।

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় নিয়ে শেষ কথা

আজকের সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি ছিল একজন ছাত্র তার ছাত্রাবস্থায় কিভাবে অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে পারে তা নিয়ে। এখানে শুধু মাত্র এমন কিছু টাস্ককে টাচ করা হয়েছে, যা একজন ছাত্র খুব সহজেই এবং অল্প সময়ে আয়ত্ত করতে সক্ষম হবে। আর যেহেতু তাড়াতাড়ি সে কাজগুলোর যেকোনো একটি সে আয়ত্ত করতে পারবে সুতরাং সে ততো তাড়াতাড়ি অনলাইনে আয় করতে পারবে। এছাড়াও এখানে আরো কয়েকটি বিষয়কে হাইলাইট করা হয়েছে। যেমন সে যদি কোনো একটি বিষয়ের উপর দক্ষতা অর্জন করে থাকে, তাহলে সে কিভাবে সেই দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে কাজ করে টাকা আয় করবে। তার জন্য কয়েকটি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলোতে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়েছে। সার্বিকভাবে বিবেচনা করলে পরিশেষে বলা যায় যে, আজকের আর্টিকেটি একটি ছাত্রের জন্য এবং অনলাইনে খুব সহজেই আয় করার গাইডলাইন হিসেবে কাজ করবে। আর যদি কোনো ছাত্র-ছাত্রী উক্ত আর্টিকেলটি ফলো করে কাজ করে, তাহলে খুব সহজেই ইনকাম করতে সক্ষম হবে। সুতারং, সর্বশেষ বলা যায় যে, ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় আর্টিকেলটি দ্ধারা যেকেউ উপকৃত হতে পারবে।

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় সম্পর্কে আরো জানতে

1 thought on “ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয়”

Leave a Comment