ব্লগ সাইটের পোস্টে আউটবাউন্ড বা এক্সটারনাল লিংক করার সঠিক নিয়ম

ব্লগ পোস্টে আউটবাউন্ড লিংক করার পদ্ধতি

ব্লগ সাইটে আউটবাউন্ড বা এক্সটারনাল লিংকিং সাইটের DA ডিএ এবং PA পিএ বাড়ানোর জন্য দরকারী ব্যাকলিংক। আর এটা যদি আমাদের সাইটে থেকে অন্য সিমিলার সাইটের উওনার বা মালিক নেয়, তাহলে সার্চ ইঞ্জিনের কাছে ব্যাংকলিংক পাওয়া সাইটটি গুরুত্ব বেশি পাবে তুলনামূলকভাবে। যদি এটা আমাদের ব্লগ সাইট থেকে নেয়, তাহলে এটা হবে আমাদের সাইটের জন্য আউটবাউন্ড লিংক বা এক্সাটারনাল লিংক।

ব্লগ সাইটে Image SEO করুন

আউটবাউন্ড লিংক বা এক্সটারনাল লিংক কী?

আমরা যখন আমাদের ব্লগ ওয়েবসাইট থেকে অন্য যেকোনো সাইটকে অথবা সিমিলার সাইটকে ব্যাকলিংক দেই, তখন তাকে আউটবাউন্ড বা এক্সটারনাল লিংক বলে। তবে এটা অবশ্যই আমাদের সাইট থেকে অন্য সাইটে যাবে। অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে এটা অন্য সাইট থেকে আমাদের ব্লগ সাইটে আসবে না। আর যদি এর বিপরীত হয়, তাহলে এটা হয়ে যাবে ব্যাকলিংক।

ব্যাক লিংক কী বা ব্যাক লিংক কাকে বলে?

ব্যাক লিংক বা ব্যাক লিংকিং হলো আমাদের সাইটের অথোরিটি গ্রো করা জন্য আমাদের সাইটের ন্যায় সিমিলার অন্য সাইট থেকে একটা রেফার বা লিংক পাওয়াকেই ব্যাকলিংক বলে। তবে ব্যাকংলিংক এর সজ্ঞার ক্ষেত্রে অবশ্যই মনে রাখতে হবে ব্যাকলিংক অন্য সাইট থেকে আমাদের সাইটে আসবে। এ জিনিসটা মাথায় রাখতে হবে।

ব্লগ সাইটে ইন্টারনাল লিংকিং করার নিয়ম

এবার আসি আউটবাউন্ড লিংক করার পদ্ধতি বা নিয়ম সম্পর্কে

সাধারণত প্রতিটা পোস্ট থেকে একটা আউটবাউন্ড লিংক করা উচিত। আর সেটা ডুফলো। আমরা যখন একটা আর্টিকেল পোস্ট করতে যাবো, তখন অবশ্যই ইন্টারনাল লিংক এর পর এক্সটারনাল লিংক করতে হবে। এখানে বাধ্যতামূলক রিকয়ারমেন্ট নেই যে কে কতটা আউটবাউন্ড লিংক করবে। তবে অনেক এসইও স্পেশালিস্টগণ বলে থাকে প্রতিটা পোস্টে অন্তত একটা হলেও ডুফলো আউটবাউন্ড লিংক করতে হবে।

কীভাবে ফ্রী-তে ব্লগ সাইট খোলে টাকা ইনকাম করবেন

আমরা যখন আমাদের পোস্ট করি, তখন আমারা অবশ্যই আগে থেকেই নির্বাচন করে রাখি এই পোস্টটি কোন ক্যাটাগরিতে রাখবো। অর্থাৎ আমরা বুঝে যাই, আমাদের কাঙ্খিত পোস্টটি কোন ক্যাটাগরিতে পড়ে। ঠিক তেমনি আউটবাউন্ড লিংক এর ক্ষেত্রেও সেই দিকটি মাথায় রাখতে হবে। আজে-বাজে সাইট কে আউটবাউন্ড লিংকিং করলেই হবে না। বর্তমান সময়ে সার্চ ইঞ্জিন গুগল খুবই স্মার্ট। আমরা কী ধরণের পোস্ট দেই তা গুগল ন্যাচারাল ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং NLP এর মাধ্যমে বুঝে ফেলে এবং সিলেক্ট করে সেরা সাইট এবং পোস্টগুলোকে। তাই আমাদেরকে অবশ্যই রিলেটেড সাইট কিংবা পোস্টকে এক্সটারনাল লিংক দিতে হবে।

Read More  ব্লগ সাইটে Image SEO করার নিয়ম

আউটবাউন্ড লিংকিং বা এক্সটারনাল লিংক করার ক্ষেত্রে যে জিনিসগুলো মনে রাখতে হবে

  1. অবশ্যই পোস্টের শুরুতে আউটবাউন্ড লিংক করা যাবে না।
  2. যেসব সাইট আমাদের সাইটের কম্পিটেটর, তাদের কোনো ভাবেই লিংক দেওয়া যাবে না।
  3. পোস্টের একেবারে শেষে আউটবাউন্ড লিংকিং করতে হবে।
  4. অবশ্যই ডুফলো লিংক করতে হবে।
  5. রিলেবেন্ট টাইপের সাইট অথবা পোস্টগুলোকে আউটবাউন্ড লিংক দিতে হবে।
  6. প্রতি পোস্টে একের অধিক আউটবাউন্ড লিংক না করাই ভালো।

উপরোক্ত এই বিষয়গুলো মনে রেখে যদি আউটবাউন্ড লিংক করেন, তবে আশা করা যায় আপনার ব্লগ সাইটে খারাপ ইম্পেক্ট পড়বে না। তারপরও আমাদের আরো বেশি সচেতন হতে হবে এক্সটারনাল লিংকিং এর ক্ষেত্রে।

একজন ব্লগার যদি উপরোক্ত সকল নিয়ম কানুন মান্য করে সঠিক পদ্ধতিতে তার ব্লগ পোস্টের পোস্টগুলো এভাবে আউটবাউন্ড লিংক করে তাহলে তার সাইট থেকে কম পরিমাণ লিংক জুস পাস হবে। আর যদি একাধিক ডুফলো লিংক কম্পিটেটরকে দিয়ে দেয়, তাহলে তার সাইটে খুবই খারাপ একটি প্রভাব পড়বে। তাই অবশ্যই এক্সটারনাল লিংকিং এর ক্ষেত্রে আরো সাবধানতা অবলম্বণ করতে হবে। যাতে করে কোনো রকম ভুল-ক্রটি না হয়।

ব্লগ সাইটের পোস্টে আউটবাউন্ড লিংক অথবা এক্সটারনাল লিংকিং করার উপায় সম্পর্কে আরো জানতে দেখুন

Leave a Comment